৭৩ তম স্বাধীনতা দিবসের প্রাক্কালে লালকেল্লায় এসে সারা দেশবাসীর উদ্দেশে ভাষণ দিলেন নরেন্দ্র মোদী। দেশবাসীর উদ্দেশে দিলেন একাধিক বার্তা, জানালেন অনেক আর্জি ও অনুরোধও। সেইসঙ্গে জানালেন সারা নতুন সরকার গঠনের পর কাজকর্মের খতিয়ানও। দেশের প্রতিরক্ষা খাতেও বড় ঘোষণা করলেন মোদী। তবে সবকিছু বাদ দিয়ে এবারের স্বাধীনতা দিবসে ধরা পড়ল প্রধানমন্ত্রীর এক অন্য মেজাজ। 

যদিও এর আগে নানা সময়ে শিশুদের সঙ্গে নরেন্দ্র মোদীর একাত্ম হওয়ার বহু ছবিই প্রকাশ্যে এসেছে। তবে স্বাধীনতা ৭৩ তম বর্ষে শিশুদের সঙ্গে এক অন্য মেজাজে দেখা গেল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে। এদিন সকালে লাল কেল্লা চত্বরের এই বিশাল সমাবেশ ছিল চোখে পড়ার মতো। 

 

অন্যান্য সব বারের মতো  এবারের স্বাধীনতার দিনটিও ছিল খানিকটা একইরকম। ভারতের জাতীয় পতাকার তিন রঙে সেজে উঠেছিল ছোট ছোট কচিকাচারা। তবে এবারের স্বাধীনতা দিবসে আগত খুদেদের জন্য ছিল এক বিশেষ মুহূর্ত। কারণ জাতির উদ্দেশে ভাষণ শেষ করেই ছোট ছোটো ছেলে-মেয়ের মাঝে চলে আসেন প্রধানমন্ত্রী। এদিন তেরঙ্গা জাতীয় পতাকার রঙে সেজে উঠেছিল কচিকাচারা। প্রধানমন্ত্রী কাছ থেকে দেখতে পেয়ে নিজেদের আবেগকে বশে রাখতে পারেনি তাঁরা। প্রধানমন্ত্রীকে এত কাছে পেয়ে তাঁকে একটু স্পর্শ করে দেখার চেষ্টায় ছিল সকলে। তাই তাঁদের সকলের ইচ্ছা পূরণ করেই যথাসম্ভব সব শিশুর সঙ্গে হাত মেলালেন প্রধানমন্ত্রী। তাঁদের উন্মাদনার সাক্ষী থাকল গোটা দেশ।