কাশ্মীর প্রসঙ্গে ডোনাল্ড ট্রাম্পের দাবি ঘিরে ইতিমধ্যেই উত্তাল হয়ে উঠেছে আন্তর্জাতিক রাজনীতি। পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের মার্কিন সফরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প দাবি করেন কাশ্মীর ইস্যুতে মধ্যস্থতা করার আবেদন করেছেন নরেন্দ্র মোদী। আর এরপরই উত্তাল হয়ে ওঠে সংসদও।
 
আর এবার এই বিতর্ককে আরও একধাপ উস্কে দিলেন কংগ্রেস নেতা তথা ওয়ানাড়-এর সাংসদ রাহুল গান্ধী। ট্রাম্পের মন্তব্য নিয়ে একদিকে যখন শুরু হয়েছে বিতর্ক, ঠিক তখনই রাহুল টুইট করে লেখেন, 'প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলছেন কাশ্মীর ইস্যুতে ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্য তাঁকে মধ্যস্থ হতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। যদি এই বিষয়টি সত্যি হয়, তাহলে বিশ্বাসঘাতকতা করছেন মোদী এবং ১৯৭২-এর সিমলা চুক্তিকেও অমান্য করছেন।' এরপর পররাষ্ট্র মন্ত্রককে কার্যত 'দুর্বল' বলে ঘোষণা করে তিনি বলেন 'একটি দুর্বল পররাষ্ট্র মন্ত্রক বিষয়টি অস্বীকার করলেই চলবে না। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে জাতির উদ্দেশে বলতে হবে ট্রাম্প এবং তাঁর মধ্যে বৈঠকে ঠিক কী কথা হয়েছে।' 

 

প্রসঙ্গত, পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের মার্কিন সফরকালে একটি চাঞ্চল্য মন্তব্য করে বসেন ট্রাম্প। তিনি বলেন, ওসাকায় জি-২০ সম্মেলনে কাশ্মীর প্রসঙ্গে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যস্থতা করতে বলেন নরেন্দ্র মোদী। আর এই আবেদন রাজি বলেও জানান ট্রাম্প। প্রসঙ্গত ১৯৭২-এর শিমলা চুক্তির অনুসারে কাশ্মীর সমস্যা ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যেকার দ্বিপাক্ষিক সমস্যা। তাই এই বিষয়ে কোনও আলোচনা হলে সেটা দ্বিপাক্ষিক স্তরেই হবে বলে মেনে নিয়েছিল দুই দেশ। আর এই সমস্যআ মেটাতে তৃতীয় কোনও পক্ষের হস্তক্ষেপ বরদাস্ত করা হবে না এমনটাও জানিয়েছিল ভরত। আর এরপর ট্রাম্পের এই দাবি আদৌ কতটা সত্যি সেই নিয়েই প্রশ্ন তুলেছে বিশিষ্ট মহল।