ভারতীয় যুদ্ধবিমান তেজসে সওয়ার হলেন কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। বেঙ্গালুরুর বায়ুসেনা ঘাঁটি হিন্দুস্থান অ্যারোনটিক্যাল লিমিটেড (হ্যাল) বিমানবন্দর থেকে লাইট কমব্যাট বিমান তেজসে (তেজস এলসিএ)-তে সওয়ার হন তিনি। প্রসঙ্গত, তিনিই প্রথম প্রতিরক্ষামন্ত্রী যিনি তেজস এলসিএ-তে সওয়ার হলেন। 

পরনে তাঁর গাড় সবুজ রঙের জি-স্যুট। এদিন সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের দুটি ছবি পোস্টও করে তিনি লেখেন এদিনের জন্য প্রস্তুত তিনি। সংবাদ সংস্থার তরফে প্রকাশিত একটি ভিডিওতে দেখা গিয়েছে,  রাজনাথ সিং পাইলটের সঙ্গে বিমানের সিড়ি বেয়ে উঠে তাঁর আসনে বসেন এবং, বিমানে সওয়ার হওয়ার আগে কার্যত যথেষ্ট উত্তেজিত ছিলেন তিনি। বিমান উড়ানের আগে একটি সাদা হেলমেট এবং একটি অক্সিজেন মাস্কও পরে নেন তিনি। এই বিষয়ে তাঁকে সাহায্য করছিলেন বায়ুসেনা আধিকারিকরা। বিমানের আসনে বসার পর তিনি সেখানে উপস্থিতদের উদ্দেশ্যে হাত নাড়েন। 

 

বিমানটি উড়ানের আগে তেজস এলসিএ-এর পাইলট এবং বিমান বাহিনীর আধিকারিকরা তাঁকে বিমানটির বিষয়ে বিস্তারিত বুঝিয়ে দেন। বিমানে তাঁর সঙ্গে সামনের আসনে ছিলেন একজন বায়ুসেনা পাইলট। এরপর রানওয়ে দিয়ে এগিয়ে গিয়ে বিমান উড়ে যায় আকাশে। এইভাবে প্রায় ৩০ মিনিটি আকাশে ছিলেন রাজনাথ সিং। 

 

এরপর উড়ান শেষে সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি শেয়ার করে নেন তাঁর অভিজ্ঞতার কথা। নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে তিনি লেখেন, তেজস যুদ্ধবিমান ওড়ার অভিজ্ঞতা তাঁর কাছে বিস্ময়কর। তিনি আরও জানান যে, এই যুদ্ধবিমান ভারতের প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাকে আরও অনেক বেশি শক্তিশালী করে তুলবে। এই যুদ্ধবিমানের উড়ান শেষ করে রাজনাথ সিং বেঙ্গালুরুতে ডিফেন্স রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশনের অর্থাৎ ডিআরডিও-র একটি প্রদর্শনীতেও অংশ নেবেন বলে জানা গিয়েছে।