৫০ পয়সার লেনদেন অনেক দিনই বন্ধ হয়েছে এরাজ্যে। সরকারি কোনও নির্দেশিকা না থাকলেও, ৫০ পয়সা অচল বলেই জানে আমজনতা। শুধু ৫০ পয়সাই নয়, ছোট এক টাকার কয়েন নিয়েও নানা রকম বিভ্রান্তি ছড়িয়েছে রাজ্যের বিভিন্ন অংশে। অনেক জায়গাতেই ছোট এক টাকার কয়েনের লেনদেন কার্যত বন্ধ। 

রিজার্ভ ব্যাঙ্ক থেকে অবশ্য স্পষ্ট করে জানিয়ে দেওয়া হল, ৫০ পয়সা এবং তার বেশি মূল্যের যে কোনও নকশার কয়েনই লেনদেনের জন্য বৈধ। শুধু তাই নয়, সমস্ত ব্যাঙ্ককেই এই সমস্ত কয়েন গ্রহণ করার জন্য নির্দেশ দিয়েছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক। নির্দেশিকা অমান্য করে কেই অসহযোগিতা করলে সংশ্লিষ্ট ব্যাঙ্কের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপের হুঁশিয়ারিও দিয়েছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক। 

আরও পড়ুন- কচুরি বেচে ৭০ লক্ষ কামাই, আয়কর দফতরের অভিযোগ মানতে নারাজ কচুরিওয়ালা

রিজার্ভ ব্যাঙ্কের পক্ষ থেকে জারি করা বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, 'জনগণের চাহিদা মেনেই বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন মূল্যের কয়েন বাজারে আনা হয়েছে। যেহেতু কয়েনগুলি দীর্ঘ সময় ধরে বাজারে থাকে, তাই একই মূল্যের বিভিন্ন নকশার কয়েন বাজারে ছড়িয়ে পড়ে। এই মহূর্তে বাজারে ৫০ পয়সা, ১, ২, ৫ এবং ১০ টাকা মূল্যের কয়েন বাজারে লেনদেনের জন্য চালু রয়েছে।'

বিভিন্ন মূল্যের কয়েনের বৈধতা নিয়ে বাজারে যে গুজব ছড়িয়েছে, তাতে কান না দিয়ে ৫০ পয়সা থেকে ১০ টাকা পর্যন্ত যে কোনও কয়েন নির্দ্ধিধায় গ্রহণ করার জন্য আমজনতার কাছে আবেদন জানিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক। এই নির্দেশ না মানলে তা রিজার্ভ ব্যাঙ্কের নির্দেশিকা ভঙ্গ বলেই গণ্য করা হবে বলে বিবৃতিতে জানানো হয়েছে।