লোকসভায় খোলাখুলি বেসরকারি সংস্থার পক্ষেও সওয়াল করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি বলেন সময় বদলে গেছে। এখন সরকারি সংস্থা যতটা গুরুত্বপূর্ণ ঠিক ততটাই গুরুত্বপূর্ণ বেসরকারি সংস্থা। একই সঙ্গে দেশের বেসরকারি সংস্থাকে সার্টিফিটেক দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন ভারত আজ বিশ্ব মানবতার কাজে আসতে পারছে তা শুধুমাত্র বেসরকারি সংস্থাগুলির জন্যই। কারণ যে সংস্থাগুলি ভ্যাকসিন তৈরি করছে সেগুলি একটিও সরকারি সংস্থা নয়। 

সংসদের বাজেট অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন পাবলিক সেক্টর অপরিহার্য। কিন্তু তারসঙ্গে বেসরকারি সংস্থার ভূমিকাও যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ। কথা প্রসঙ্গে তিনি টেলিকম ও ফার্সা সেক্টরের উদাহরণ টেনে আনেন। বলেন টেলিকম সেক্টরের বেসরকারিকরণ হয়েছে বলে বর্তমানে কম খরচেই মোবাইল ফোনে কথা বলতে পারছেন দেশের পিছিয়ে পড়া নাগরিকতা। খুব কম খরচে তাঁরা ইন্টারনেট পরিষেবা পাচ্ছেন বলেও দাবি করেছেন মোদী। একই সঙ্গে তিনি বলেন ভ্যাকসিন প্রস্তুকারক সংস্থাগুলিও বেসরকারি। আজ বিশ্বের নানা প্রাপ্তে সেই সংস্থাগুলিএ ভ্যাকসিন পাঠিয়ে দেশের নাম উজ্জ্বেল করছে। 

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এদিন বলেন কোনও একটা সময় ছিল যখন সরকারি সংস্থাই সব কাজ করত।কিন্তু এখন সময় বদলেছে। আর বদলে যাওয়া সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে বেসরকারি সংস্থাগুলির গুরুত্বও বেড়েগেছে। একই সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, কর্মসংস্থান বাড়াতেও বেসরকারি সংস্থাগুলি বর্তমানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা গ্রহণ করেছে। এদিন বেসরকারি সংস্থার প্রধানদের সঙ্গে তিনি ভারতীয় প্রথম শ্রেণির আমলা বা আইএএসদেরও তুলনা করেন। তিনি আমলাদের বাবু বলে সম্বোধন করে বলেন একজন আইএএস পাস করছে তারমানে এই নয় যে সে সবকিছু চালাতে পারবে। কিন্তু আমলাদের ওপর দেশ যেমন অনেকাংশে নির্ভরশীল তেমনই আস্থারাখা প্রয়োজন দেশীয় শিল্পপতিদের ওপর। তাঁরাও কোনও অংশে কম নন বলেও দাবি করেন তিনি। তিনি বলেন দেশীয় বিনিয়োগকারীদের নিয়ে কুৎসা কখনই তিনি বরদাস্ত করবেন না। ভারতীয় তরুণদের ওপর আস্থারাখা জরুরি বলেও দাবি করেন প্রধানমন্ত্রী।