এখনও সঙ্কটে প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা অরুণ জেটলি। শ্বাসকষ্টজনিত সমস্য়া নিয়ে গত ৯ অগাস্ট দিল্লির অল ইন্ডিয়া ইন্ডিয়া ইন্সটিটিউট অব মেডিকেল সায়েন্স (এইসমস)-এ ভর্তি করা হয় ৬৬ বছর বয়সি জেটলি-কে। প্রাথমিকভাবে চিকিৎসায়ে সাড়া দিলেও গত কয়েকদিনে তাঁর অবস্থা আশঙ্কাজনক অবস্থায় রয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

 

রবিবাত সকালে অসুস্থ অরুণ জেটলি-কে হাসপাতালের উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন আরএসএস প্রধান মোহব ভাগবত।  ৯ অগাস্ট তাঁকে দেখতে হাসপাতালে গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এরপর শুক্রবার তাঁকে দেখতে এইমস-এ যান রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন এবং উত্তপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। এরপর শনিবার সকাল থেকেই এইমস-এ  ছিল নেতামন্ত্রীদের আনাগোনা। ওইদিন তাঁকে হাসপাতালে দেখতে গিয়েছিলেন বিএসপি নেত্রী মায়াবতী, কংগ্রেস সাংসদ অভিষেক মনু সিংভি এবং বায়ুসেনা প্রধান বীরেন্দ্র সিং ধানোয়া। 

দীর্ঘদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী থাকার সময়েই তাঁর কিডনি প্রতিস্থাপন হয়েছিল। প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালে নবনির্বাচিত মোদী সরকারের মন্ত্রীসভায় যোগ না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তিনি। নতুন মন্ত্রীসভা গঠনের সময়ে তিনি তাঁর শারিরীক অসুস্থতার জন্য মন্ত্রীসভার কোনও দায়ভার নিতে পারবেন না বলে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখেছিলেন তিনি।