স্বাধীনতা দিবসের দিন জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জল সংরক্ষণের উপর জোর দিয়েছিলেন। ভারত সহ গোটা পৃথিবীই ভবিষ্যতে তীব্র জল সংকটের মুখে পড়তে চলেছে। এর মোকাবিলায় দেসবাসীর মধ্যে জল সংরক্ষণ নিয়ে সচেতনতা বৃদ্ধি করতে জল শক্তি অভিযানের ডাক দিয়েছিলেন তিনি। এবার তাঁর সেই স্বপ্নকে সফল করতে নামলেন সদগুরু। মঙ্গলবার কাবেরি নদীর উৎস কেরলের কাসারগড় জেলার তালা কাবেরি থেকে কাবেরি কলিং যাত্রা শুরু করলেন।

গত ৫০ বছরে কাবেরির অববাহিকা এলাকায় প্রায় ৮৭ শতাংশ গাছ কেটে সাফ করে দেওয়া হয়েছে। এর ফলে কাবেরি নদীতে এখন আর সারা বছর জল থাকে না। শুধু বর্ষাকালেই এই নদীতে দল থাকে। দারুণ বিপদের মুখে পড়েছেন কয়েক কোটি কৃষক। কাবেরি নদীকে পুনরুজ্জীবিত করার উদ্দেশ্য়েই উৎস কাবেরি কলিং প্রকল্প শুরু করা হয়েছে।

এই প্রকল্পের মাধ্যমে ২৪২ কোটি গাছ লাগানোর পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। এই বৃক্ষরোপনের মাধ্যমেই কাবেরি ফের জলে টইটুমবুর হয়ে উঠব বলে জানিয়েছেন পরিবেশ বিশেষজ্ঞরা। এইভাবে ভারতের আরও অন্যান্যা জায়গার অনেক শুকিয়ে যাওয়া নদীকেই ফের বাঁচিয়ে তোলা যেতে পারে বলে দাবি করছেন এই প্রকল্পের সঙ্গে জড়িতরা। এদিনের বাইক যাত্রার মাধ্যমে সেই প্রচারই চালানো হবে।

বাইক যাত্রা শুরুর একটি ছবি পোস্ট করে সদগুরু প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সমর্থন চেয়েছেন। পাল্টা টুইটে প্রধানমন্ত্রীও সদগুরুর এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন। তিনি আরও বলেছেন জল শক্তিকে মজুত করতে ও অপ্রয়োজনীয় জলের অপচয় রোধে এই উদ্য়োগ বড় ভূমিকা নেবে বলেও আশা প্রকাশ করেছেন তিনি।