করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত দ্বিতীয় রোগীর খোঁজ মিলল ভারতে। এবারও সেই কেরলেই চিন ফেরত এক ব্যক্তির শরীরের রবিবার করোনা ভাইরাসের খোঁজ মিলেছে। সরকারিভাবে কেরল সরকার এ কথা স্বীকারও করে নিয়েছে। তবে কেরলে ক্রমেই বাড়ছে করোনা ভাইরাস আতঙ্ক। এখনও পর্যন্ত করোনা ভাইরাস-এর মতো উপসর্গ থাকায় চিন ফেরত ৭০ জনকে কেরলের বিভিন্ন হাসপাতালে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। গোটা রাজ্যে মোট চিন ফেরত ১৭৯৩ জনকে পর্যবেক্ষণে রেখেছে রাজ্যের স্বাস্থ্য মন্ত্রক। পরিস্থিতি মোকাবিলায় এ দিনই জরুরি বৈঠকে বসছে কেরল সরকারের স্বাস্থ্য দফতর। 

কেরল সরকারের স্বাস্থ্য দফতরের তরফে জানানো হয়েছে, 'এক ব্যক্তির শরীরে নভেল করোনা ভাইরাস-এর জীবাণু মিলেছে এবং তাঁকে হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে।'

যদিও ওই রোগীর অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে বলেই দাবি সরকারি আধিকারিকদের। তাঁকে কড়া পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। 

কেরলের এক ছাত্রীর শরীরেই ভারতে প্রথম করোনা ভাইরাসের জীবাণু পাওয়া গিয়েছিল। এখনও সেই ছাত্রী কেরলের হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। চিনের উহান প্রদেশে  মেডিক্যাল পড়তে গিয়েছিল সে। উহানকেই করোনাভাইরাসের উৎপত্তিস্থল বলে চিহ্নিত করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই চিনের উহান থেকে এয়ার ইন্ডিয়া-র দ্বিতীয় বিমান তিনশোর বেশি ভারতীয়কে নিয়ে নিয়ে দিল্লি পৌঁছেছে। এ দিকে চিনে করোনা ভাইরাস-এ আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা তিনশো ছাড়িয়েছে। ভারত সহ মোট একুশটি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে করোনা সংক্রমণ।