শনিবার বস্তারে এনকাউন্টারে মারা গিয়েছে সাতজন মাওবাদী দলের কর্মী। জানা গিয়েছে সাতজন নিহতের মধ্যে মহিলা ছিল তিনজন। সূত্রের খবর শনিবার ছত্তিশগড়-এর বস্তার জেলায় সকাল থেকেই সুরক্ষা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষ লিপ্ত হয় তারা। সুরক্ষা বাহিনীর সঙ্গে গুলির লড়াইয়ে তাঁদের প্রাণ গিয়েছে বলে জানা গিয়েছে। 

একটি সর্বভারতীয় সংবাদ সংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাতকারে পুলিশের ডেপুটি ইন্সপেকটার জেনারেল সুন্দররাজ পি জানিয়েছেন, ওড়িশা সীমান্তের কাছে বস্তারের নগরনার থানা এলাকার তিরিয়া গ্রামের কাছে গভীর জঙ্গলে শনিবার বিকেল ৪টে নাগাদ ঘটনাটি ঘটে। জানা গিয়েছে আন্তঃরাজ্য সীমান্তের বনাঞ্চলে ডিস্ট্রিক্ট রিজার্ভ গার্ড এবং স্পেশাল টাস্ক ফোর্সের যুগ্ম প্রচেষ্টায় একটি নকশাল বিরোধী প্রচেষ্টা চালানো হয়েছিল।

আরও পড়ুন- প্রয়াত হলেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জয়পাল রেড্ডি

সূত্রের খবর, ওই বিশেষ দল যখনই রাজধানী রায়পুর থেকে ৪০০ কিলোমিটার দূরে তিরিয়ার জঙ্গলের অভিযান চালায় তখনই নকশালা বাহিনীর সঙ্গে তাদের সংঘাত শুরু হয়। এই সংঘাতেই প্রাণ হারায় তিন মহিলা-সহ মোট সাতজন। পরে ঘটনাস্থল থেকে ওই সাতজনের দেহ উদ্ধার কার হয়। পাশাপাশি ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার হয়েছে একটি আইএনএসএএস রাইফেল, চারটি পয়েন্ট ৩০৩ রাইফেল-সহ একাধিক পিস্তল।