পদ্মবিভূষণ পুরষ্কারের জন্য জাপানের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে ও প্রয়াত সঙ্গীত শিল্পী এসপি বালাসুব্রমনিয়ামের নাম ঘোষণা করেছে ভারত সরকার। এটি ভারতের সর্বোচ্চ বেসামরিক পুরষ্কার। পুরষ্কার প্রাপকের তালিকায় থাকা সঙ্গীতশিল্পী এসপি বালাসুব্রমনিয়াম গত বছরই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন। দীর্ঘ দিন হাসপাতালে থাকার পরেই রোগমুক্তি হয়নি। চেন্নাইয়ের একটি হাসপাতালে তাঁর মৃত্যু হয়। আর শারীকির অসুস্থতার কারণে নিজের পদ থেকে সরিয়ে দাঁড়িয়েছিলেন জাপানের প্রধান শিনজো আবে। তাঁর আমলে ভারত-জাপান সম্পর্ক দৃঢ় হয় বলেই মনে করেন আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞরা। 

পদ্মবিভূষণ পুরষ্কার প্রাপকের তালিকায় রয়েছে, কর্ণাটকের বাসিন্দা চিকিৎসক বেল্লে মোনাপ্পা হেগড়ে। চিকিৎসা ক্ষেত্রে অবদানের জন্য তাঁকে এই পুরষ্কার প্রদান করা হচ্ছে। আমেরিকার বাসিন্দা প্রয়াত নারিন্দ্রসিং কাপানে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিতে বিশেষ অবদানের জন্য এই পুরষ্কার পাচ্ছেন। দিল্লির বাসিন্দা মৌলনা ওয়াউন্নিন খাম ও শ্রী বিবি লালের নাম ঘোষণা করা হয়েছে পদ্মবিভূষণ পুরষ্কারের জন্য। ওড়িশার বাসিন্দা সুদর্শন সাহু সংস্কৃতির ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য এই পুরষ্কার পাচ্ছেন। 

কেন্দ্রীয় সরকার এদিন পদ্মভূষণ প্রাপকদের নামও ঘোষণা করেছে। এই পুরষ্কার পাচ্ছেন, প্রায়ত রাজনীতিবিদ তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রামবিলাস পাসোয়ান ও অসমের প্রয়াত মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৈ।  তালিকায় নাম রয়েছে  প্রাক্তন স্পিকার সুমিত্রা মহাজন, প্রাক্তন আধিকারিক নৃপেন্দ্র মিশ্র সহ বহু বিশিষ্টদের।  ক্রীড়া, শিক্ষা, সংস্কৃতি, রাজনীতি, সাহিত্য সহ এখকাধিক ক্ষেত্রে সনামধন্য ১১৯ জনকে এই পুরষ্কার প্রদান করা