নতুন উচ্চতা অর্জন করল 'স্ট্যাচু অফ ইউনিটি'। তার মুকুটে লাগল নতুন পালক। আর্কিওলজিকাল সার্ভে অব ইন্ডিয়ার এক সমীক্ষায় জানা গেল, দেশের শীর্ষ ৫ টি স্মৃতিস্তম্ভগুলির উপার্জনের দিক থেকে সবার আগে রয়েছে 'স্ট্যাচু অফ ইউনিটি'। এমনকী বিশ্বের সেরা আশ্চর্যগুলির অন্যতম তাজমহলকেও এই বিষয়ে পিছনে পড়ল।

ভারতের প্রত্নতাত্ত্বিক গবেষণা এবং সাংস্কৃতিক স্মৃতিসৌধগুলির রক্ষণাবেক্ষণ করে থাকে আর্কিওলজিকাল সার্ভে অব ইন্ডিয়া। তারাই দেশের শীর্ষ ৫টি স্মৃতিসৌধগুলির আয় নিয়ে এক সমীক্ষা চালিয়েছে। সমীক্ষায় জানা গিয়েছে, গত এক বছরে তাজমহলের আয় হয়েছে ৫৬ কোটি টাকা। সেখানে গত এক বছরে স্ট্যাচু অফ ইউনিটির আয় হয়েছে ৬৩ কোটি টাকা।

২০১৮ সালে ভারতের প্রথম উপ-প্রধানমন্ত্রী তথা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সর্দার বল্লভভাই প্যাটেলকে, তাঁর এই সুউচ্চ মূর্তিটি উৎসর্গ করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এই বিশাল মূর্তিটির নাম দেওয়া হয় 'স্ট্যাচু অফ ইউনিটি'। এর উচ্চতা ১৮২ মিটার বা ৫৯৬ ফুট। এটিই বিশ্বের উচ্চতম মূর্তি। এই মূর্তিটি তৈরিতে ২,৯৮৯ কোটি টাকা ব্যয় হয়েছিল।