ফুরিয়ে এসেছে খাদ্য-পানীয়-জ্বালানী। যতদূর চোখ যায়, দিগন্ত বিস্তৃত এলাকায় চারিদিকে শুধু জল আর জল। এ যেন প্রকৃতির সঙ্গে লড়াই করে টিকে থাকা। দীর্ঘ ৩১ মাস ধরে এইভাবেই পারস্য উপসাগরের বুকে একটি জাহাজে চেপে ভেসে বেড়াচ্ছে দুই ভারতীয় নাগরিক। জাহাজটির অবস্থা এতটাই শোচনীয় যে, যে-কোনও মুহূর্তেই তলিয়ে যেতে পারে সমুদ্রের জলে। অসহায়ভাবে যেন মৃত্যুর প্রহর গুনছেন ওই দুই ভারতীয় নাবিক।  

উত্তরপ্রদেশের বাসিন্দা বিকাশ মিশ্র এবং তাঁর সঙ্গে রয়েছেন তামিলনাড়ু নিবাসী আর এক ভারতীয়। এমভি তামিম আলদার নামে ওই জাহাজে টানা ৩১ মাস তাঁরা ভেসে রয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরশাহি উপকূলের পারস্য উপসাগরে। খাদ্য,পানীয় ও জ্বালানী শেষ হয়ে যাওয়ায় একপ্রকার নিরুপায় হয়েই নিজেদের অবস্থার কথা জানিয়ে খবর পাঠিয়েছেন তাঁরা। জানা গিয়েছে জ্বালানির অভাবে চলছে না জাহাজ। বন্ধ হয়ে গিয়েছে প্রধান ইঞ্জিন জেনারেট। বিপজ্জনক ওই জাহাজটি যে-কোনও মুহূর্তেই তলিয়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কা।  

এখানেই শেষ নয়, গত ২৬ মাস ধরে বেতনও পাচ্ছেন না বিকাশ মিশ্র। সম্বল বলতে কয়েকটা ন্যুডলস-এর প্যাকেট। মুম্বইয়ের একটি সংস্থার হাত ধরে জাহাজে কাজ করা শুরু করেছিল তাঁরা। তবে তাঁদের এই দুরবস্থার কথা দেরিতে হলেও জানতে পেরেছেন ভারতের কনসোল জেনারেল (দুবাই)। তাঁদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যত শীঘ্রই সম্ভব উদ্ধার করা হবে ওই দুই নাবিককে।