সারদা মামলায় চাপ বাড়ল কলকাতা প্রাক্তন নগরপাল রাজীব কুমারের। তাঁর বিরুদ্ধে নোটিশ  জারি করল সুপ্রিম কোর্ট। চিটফান্ড কাণ্ডে রাজীব কুমারকে জামিন দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্টে। হাইকোর্টের সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টের মামলা করেছে সিবিআই। শুক্রবার সেই মামলার শুনানিতে রাজ্য পুলিশে অন্য়তম শীর্ষকর্তাকে নোটিশ পাঠাল সুপ্রিম কোর্ট।

সারদার মামলার তদন্তে তাঁর নেতৃত্বেই সিট বা বিশেষ তদন্তকারী দল গঠন করেছিল রাজ্য সরকার। আর এখন প্রমাণ লোপাটের অভিযোগে রাজীব কুমারকেই হেফাজতে নিতে মরিয়া সিবিআই! গ্রেফতারি এড়াতে আগাম জামিনের আবেদন জানিয়ে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন কলকাতার প্রাক্তন নগরপাল। তাঁকে আগাম জামিন দেন হাইকোর্টের বিচারপতি শহীদুল্লাহ মুন্সি ও বিচারপতি শুভাশিস  দাশগুপ্তের ডিভিশন বেঞ্চ। আদালতের নির্দেশ, তদন্তে স্বার্থে ডাকলে সিবিআই দপ্তরে হাজিরা দিতে হবে রাজীব কুমারকে। তবে তাঁকে গ্রেফতার করা যাবে না।

গত ৪ অক্টোবর রাজীব কুমারের জামিনে বিরোধিতা করে সুপ্রিম কোর্টে মামলা করে সিবিআই। ২৯ অক্টোবর পর্যন্ত শুনানিতে স্থগিতাদেশ জারি করে শীর্ষ আদালত।  শুক্রবার সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি এসএ বোবদে বিচারপতি বি আর গাবাই-এর ডিভিশন বেঞ্চে মামলাটি ওঠে।  আদালতে সিবিআইয়ের হয়ে সওয়াল করেন সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা।  তবে রাজীব কুমারকে হেফাজতে নিয়ে জেরার করার অনুমতি পায়নি কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা।  সুপ্রিম কোর্ট সাফ জানিয়ে দিয়েছে, সিবিআইকে প্রমাণ দিতে হবে যে, রাজ্য পুলিশের অন্যতম এই শীর্ষকর্তাকে হেজাজতে নিয়ে জেরা করা দরকার।  সেই প্রমাণে আদালত যদি সন্তুষ্ট হয়, তবেই মিলবে অনুমতি।