বিদায়ী মন্ত্রিসভার সদস্য হিসেবে পদত্যাগ করেছেন। কিন্তু রাষ্ট্রপতির অনুরোধে এখনও কাজ চালাচ্ছেন। রবিবার, ফের একবার বিদেশমন্ত্রী হিসেবে তাঁর মানবিক রুপ দেখা গেল। গরুর কল্যাণ করার জন্য এইবছই পদ্মশ্রী পুরস্কার প্রাপ্ত এক জার্মান মহিলার কেন ভিসা বৃদ্ধি করা হচ্ছে ন, তাই নিয়ে রিপোর্ট তলব করলেন তিনি।

৬১ বছরের জার্মান মহিলা ফ্রিয়েডরাইক ইরিনা ব্রুনিং দীর্ঘদিন ভারতে গরুদের কল্যাণের উদ্দেশ্যে কাজ করছেন। মথুরায় প্রায় দুই দশক ধকরে তিনি আহত অসুস্থ সহায়হী গরুদের দেখভাল করেন। সেখানে তিনি সুদেবী মাতাজি নামে পরিচিত। এই বছর তাঁর কাজের স্বীকৃতি হিসেবে ভারত সরকার তাঁকে পদ্মশ্রী সম্মান দিয়ে ভূষিত করেছে।

জানা গিয়েছে সম্প্রতি তিনি ভিসার মেয়াদ বৃদ্ধির জন্য আবেদন করেছিলেন। কিন্তু রাজি হয়নি ভারত সরকার। শুধু তাই নয় এক সংবাদপত্রের দাবি তাঁকে পুরস্কার ফিরিয়ে দিতে হতে পারে বলে হুমকিও দেওয়া হয় বিদেশ দপ্তর থেকে।

টুইটারে খুবই সক্রিয় বিদেশমন্ত্রী। বিভিন্ন ক্ষেত্রেই বিদেশী বা প্রবাসী ভারতীয়রা টুইটারের সাহায্যে তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করে সাহায্য পেয়েছেন। এই ক্ষেত্রেও সেশ্যাল মিডিয়াতেই ওই সংবাদ প্রতিবেদজন তাঁর নজরে আসে। এরপরই তিনি এই বিষয়ে রিপোর্ট চেয়েছেন, একই সঙ্গে টুইটারে বিষয়টি তাঁর নজরে আনার জন্য ধন্যবাদ দিয়েছেন।