অযোধ্যায় রাম মন্দিরের ভূমি পুজো নিয়ে মন্তব্য করে এবার ভারতীয় মুসলমানদেরই একাংশের তীব্র আক্রমণের মুখ পড়লেন হায়দরাবাদের সাংসদ তথা অল ইন্ডিয়া মজলিস-ই-ইত্তেহাদুল মুসলিমিন (এআইমিম) প্রধান আসাদউদ্দিন ওয়াইসি। বৃহস্পতিবার তাঁর প্রবল নিন্দা করে শিয়া ওয়াকফ বোর্ডের চেয়ারম্যান সৈয়দ ওয়াসিম রিজভি বলেন ওয়াইসি-র পাকিস্তানে চলে যাওয়া উচিত। তাতে ভারতীয় মুসলমানরা শান্তিতে থাকবেন।

বুধবার অযোধ্যার রামমন্দিরের ভূমি পূজন হয়। দিনটিকে ওয়াইসি 'হিন্দুত্ববাদ ও সংকালঘুত্ববাদের জয়' এবং 'গণতন্ত্র ও ধর্মনিরপেক্ষতার পরাজয়ের' দিন বলে আখ্যা দিয়েছিলেন"। হায়দরাবাদের সাংসদ আরও বলেন, অযোধ্যার ওই অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী শুধু মন্দিরের ভিতই নয়, হিন্দুরাষ্ট্রের ভিত্তিপ্রস্তরও স্থাপন করেছেন।

এরই জবাবে এদিন হিন্দি ভাষায় একটি ভিডিও বার্তা প্রকাশ করে শিয়া ওয়াকফ বোর্ডের চেয়ারম্যান অযোধ্যায় রাম মন্দিরের বিষয়ে ওয়াইসিকে চুপ করে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন। তিনি জানান ভারতীয় সংবিধানের বিধি দ্বারা আবদ্ধ সুপ্রিম কোর্ট এই মন্দির নির্মাণের পথ প্রশস্ত করেছে। এরপর এই বিষয় নিয়ে ওয়াইসির আর সাম্প্রদায়িক রাজনীতি করা উচিত নয়।

ওয়াইসির রাজনীতি হিন্দু ও মুসলমানদের মধ্যে রক্তপাতের দিকে টেনে নিয়ে যাবে বলে মত দিয়ে তিনি বলেন, তালিবান নেতা মোল্লা মহম্মদ ওমর ও আল কায়েদা নেতা ওসামা বিন লাদেন-কে হত্যা করা হয়েছে। কাজেই পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের এখন ওয়াইসি-র দরকার। তাই তাঁর সেইসব দেশেই চলে যাওয়া উচিত। তাতে ভারতের মুসলমানরা শান্তিপূর্ণভাবে জীবনযাপন করতে পারবে।