পাক অধিকৃত কাশ্মীর বিষয়ে তাঁর বক্তব্য নিয়ে রবিবার পরামর্শের ছলে একপ্রকার সেনাপ্রধান জেনারেল মনোজ মুকুন্দ নারাভানে-কে চ্যালেঞ্জ করে বসলেন কংগ্রেস নেতা অধীররঞ্জন চৌধুরী। লোকসভায় কংগ্রেস দলের পরিষদীয় নেতা নয়া সেনাপ্রধানকে 'এদিন কথা কম, কাজ বেশি'-র পরামর্শ দিয়েছেন। দিন দুয়েক আগেই জেনারেল নারাভানে বলেছিলেন, সেনাবাহিনী পিওকে-তে বৃহত্তর পর্যায়ের অভিযানের জন্য প্রস্তুত।

১৯৯৪ সালে ভারতীয় সংসদে সর্বসম্মতিক্রমে পাক অধিকৃত কাশ্মীর নিয়ে একটি প্রস্তাবনা গৃহীত হয়েছিল। তাতে বলা হয়েছিল জম্মু ও কাশ্মীর ভারতের একটি অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ এবং পাকিস্তান যে অঞ্চলগুলি দখল করে আছে সেখান থেকে তাদের সেনা প্রত্যাহার করতে হবে। এদিন সেই প্রস্তাবনার কথা তুলে অধীর চৌধুরী জেনারেল নারাভানে সত্যিই যদি পিওকে নিয়ে ব্যবস্থা গ্রহন করতে চান, তাহলে তাঁর সিডিএস বা চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ তথা প্রাক্তন সেনাপ্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে শলা পরামর্শ করা উচিত।

সেনাপ্রধানের দায়িত্ব নেওয়ার দিন কয়েকের মধ্যেই এক সর্ববারতীয় সংবাদমাধ্যমকে সাক্ষাতকারে জেনারেল নারভানে অধিকৃত কাশ্মীরের প্রসঙ্গ তোলেন। তিনি বলেন সংসদ যদি চায় তাহলে পাকসেনা-কে পিওকে থেকে সরিয়ে দেবে ভারতীয় সেনা। পিওকে অভিযানের জন্য ভারতীয় সেনার 'বিভিন্ন পরিকল্পনা' ছকা আছে। সেই সঙ্গে পিওকে ফিরিয়ে নেওয়ার আদেশই যে সংসদের দেওয়া উচিত, সেই কথাও বলেন।