তিনি রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী। অথচ তিনিই দশম শ্রেণী পাস। তারপর স্কুলের সঙ্গত্যাগ করেছিলন। এমন ক্লায় টেন পাস ব্যক্তি কি শিক্ষা দপ্তরের দায়িত্ব সামলাতে পারবেন? মন্ত্রী হওয়ার পর থেকেই বারবার এই প্রশ্নটা শুনতে হত। তাই রেগে গিয়ে  এক অসামান্য কীর্তি গড়ে ফেললেন ঝাড়খণ্ডের মানবসম্পদ মন্ত্রী জগন্নাথ মাহাতো। সোমবার তিনি জানিয়েছেন, তিনি আবারও স্কুলে ভর্তি হচ্ছেন।

ঝাড়খণ্ডের শিক্ষার উন্নতির জন্য রাজ্য জুড়ে নতুন মডেল স্কুল খুলছে সরকার। সোমবার সাংবাদিকদের সামনে সেই কথাই ঘোষণা করতে এসেছিলেন মন্ত্রী। সেইসময়ই সকলকে চমকে দিয়ে জানান, তিনি নতুন করে একাদশ শ্রেনীতে ভর্তি হচ্ছেন। এবং কঠোরভাবে পড়াশোনা করবেন। জগন্নাথ মাহাতো বলেন, 'যখন মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রকের দায়িত্ব নেওয়ার বিষয়ে আমার দক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়েছিল আমার খুব খারাপ লেগেছিল'। তাই আবারো স্কুলে ফিরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী।

ঝাড়খণ্ড রাজ্য জুড়ে ৪,৪১৬ টি মডেল স্কুল খোলা হচ্ছে। সোমবারই সেই নির্দেশনামায় স্বাক্ষর করেছেন তিনি। এই শিক্ষাযজ্ঞে সামিল হতে চাইছেন নিজেও। করবে"। ৫৩ বছর বয়সী এই মন্ত্রী ঝাড়খণ্ডের বোকারো জেলায় দেবী মাহাতো ইন্টার কলেজে ভর্তি হয়েছেন বলে জানিয়েছেন। ২৫ বছর পর নতুন করে পড়াশোনা শুরু করতে একটু সমস্যা হতে পারে। কিন্তু, মন্ত্রী জানিয়েছেন, কোনওরকম ফাঁকি তিনি দেবেন না।

এদিন তিনি নিজেই একটি ভিডিও পোস্ট করে সঙ্গে লেখেন, 'আমি নিজেকে উন্নত করার কাজ শুরু করছি। ম্যাট্রিক পাস করার পরে, পরিস্থিতি আমাকে পড়াশোনা থেকে দূরে সরিয়ে দিয়েছিল। আজ সেই দূরত্ব অতিক্রম করার ইচ্ছা আমায়য় অনুপ্রাণিত করেছে'।