Asianet News BanglaAsianet News Bangla

লাদাখ সীমান্তে সেনা প্রত্যাহারের দাবি নিয়ে ফের চিনের সঙ্গে বৈঠকে ভারত

গত সপ্তাহে বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর এবং চিনের বিদেশমন্ত্রী ওয়াং ইয়ের মধ্যে বালিতে অনুষ্ঠিত আলোচনায় পূর্ব লাদাখ সম্পর্কিত বিরোধের বিষয়টি গুরুত্ব পেয়েছিল। G20 সম্মেলনের সাইডলাইনে বালিতে এক ঘন্টার বৈঠকে, জয়শঙ্কর পূর্ব লাদাখের সমস্ত মুলতুবি সমস্যাগুলির দ্রুত সমাধানের প্রয়োজনীয়তা ওয়াং ইকে জানিয়েছিলেন।

The 16th Round Of Meeting Between India And China Will Be Held Today bpsb
Author
Kolkata, First Published Jul 17, 2022, 8:58 AM IST

লাদাখ সীমান্তে উত্তেজনা ইস্যুতে রবিবার ভারত ও চিনের মধ্যে কমান্ডার পর্যায়ের ১৬ তম বৈঠক অনুষ্ঠিত হতে চলেছে। লাদাখের বিতর্কিত এলাকা থেকে সেনা সরিয়ে নিক চিন, আপাতত এই দাবি তুলেই বৈঠকের দিকে তাকিয়ে নয়াদিল্লি। তাই এটা প্রত্যাশিত যে ভারত ডেপসাং এবং ডেমচোকের সমস্যাগুলি সমাধান করা ছাড়াও বাকি সমস্ত ফ্রিকশন পয়েন্টগুলিতে দ্রুত সেনা প্রত্যাহার করার জন্য চাপ দেবে বেজিংকে।  

শি জিনপিং জিনজিয়াং সফর করেন
উল্লেখ্য, বৈঠকের একদিন আগে, চিনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং জিনজিয়াং প্রদেশে সফর করেন এবং তার সেনাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। পিপলস লিবারেশন আর্মি বা পিএলএ এর জিনজিয়াং মিলিটারি কমান্ড ২০২০ সালের মে মাস থেকে চিনের তরফে এই এলাকায় নজরদারি করছে। দুই পক্ষের মধ্যে সামরিক অচলাবস্থার মধ্যে লাদাখ অঞ্চলে ভারত-চিন সীমান্তের তদারকি করে পিএলএ। তাই চিনা প্রেসিডেন্টের জিনজিয়াং প্রদেশ সফর তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করা হচ্ছে। রবিবার ভারত ও চিনের মধ্যে ১৬তম দফা সামরিক আলোচনার আগে জিনজিয়াংয়ে চিনা সেনাদের সাথে শি জিনপিং  বৈঠক করেন। 

The 16th Round Of Meeting Between India And China Will Be Held Today bpsb

গত সপ্তাহে বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর এবং চিনের বিদেশমন্ত্রী ওয়াং ইয়ের মধ্যে বালিতে অনুষ্ঠিত আলোচনায় পূর্ব লাদাখ সম্পর্কিত বিরোধের বিষয়টি গুরুত্ব পেয়েছিল। G20 সম্মেলনের সাইডলাইনে বালিতে এক ঘন্টার বৈঠকে, জয়শঙ্কর পূর্ব লাদাখের সমস্ত মুলতুবি সমস্যাগুলির দ্রুত সমাধানের প্রয়োজনীয়তা ওয়াং ইকে জানিয়েছিলেন।

জয়শঙ্কর বলেছিলেন, দুই দেশের সম্পর্ক পারস্পরিক শ্রদ্ধা, পারস্পরিক সংবেদনশীলতা এবং পারস্পরিক স্বার্থের ভিত্তিতে হওয়া উচিত। কিছু সংঘর্ষের স্থান থেকে সেনা প্রত্যাহারের কথা উল্লেখ করে বিদেশমন্ত্রী এক বিবৃতিতে বলেছিলেন যে সীমান্ত এলাকায় শান্তি ও স্থিতিশীলতা পুনরুদ্ধারের জন্য অবশিষ্ট সমস্ত এলাকা থেকে সেনা প্রত্যাহারের প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। তা দ্রুত বাস্তবায়িত করা প্রয়োজন। 

২০২০ সালের ৫ই মে ভারত চিন সংঘর্ষ
একের পর এক সামরিক ও কূটনৈতিক আলোচনার ফলস্বরূপ, দুই দেশ গত বছর প্যাংগং লেক এবং গোগরা অঞ্চলের উত্তর ও দক্ষিণ তীরে পৃথকীকরণের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে। উল্লেখ্য, ২০২০ সালের ৫ই মে প্যাংগং লেক এলাকায় ভারত ও চিনের সেনাবাহিনীর মধ্যে হিংসাত্মক সংঘর্ষের পর পূর্ব লাদাখে সীমান্ত বিরোধ শুরু হয়। তারপর থেকে, দুই দেশই ভারী অস্ত্র সহ ৫০-৬০ হাজার সেনা মোতায়েন করেছে।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios