সকাল থেকে একের পর এক ফোনে ঘুম ছুটে গিয়েছিল স্পেনিয় মুর্সিয়া প্রদেশের মোলিনা দে সেগুরা পৌরসভা এলাকার পুলিশের। বাসিন্দাদের অভিযোগ, স্থানীয় এক পার্কে মেজাজে ঘুরে বেড়াচ্ছে আফ্রিকার রাজা, একটি সিংহ। এই নিয়ে একের পর এক ফোনে ব্যতিব্যস্ত হয়ে পড়েছিল পুলিশ বিভাগ। কিন্তু তদন্ত করতে গিয়ে যা বের হল, তাতে ঘটনাটি গোটা বিশ্বে সাড়া ফেলেছে। পুলিশ তাদের তদন্তের ফলাফল সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ করতেই নেট দুনিয়ায় সেই পোস্ট ভাইরাল হয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে সম্ভবত ৭ মার্চ। ওই দিন মোলিনা দে সেগুরা-র পুলিশের অফিশিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্টে একটি লোমশ প্রাণীর ছবি পোস্ট করা হয়। সেই সঙ্গে পুলিশ লেখে, ওইদিন সকালে স্থানীয় এক পার্কে একটি সিংহ ঘুরে বেড়াচ্ছে এই মর্মে তারা বেশ কয়েকটি অভিযোগ পেয়েছিল। তারপর তারা তদন্ত করতে গিয়ে দেখে ওই লোমশ প্রাণীটি মোটেই সিংহ নয়। নেহাতই একটি বড় বড় লোমওয়ালা কুকুর। পুলিশ জানিয়েছে আপাতত তারা কুকুরটির মালিককে খুঁজছে।

ইউরোপিয় ঠান্ডার দেশগুলিতে অনেক কুকুরের লোমই খুব বড় হয়। গরম পড়লে সেই সব লোম ছেঁটে দেওয়া হয়। কিন্তু এই কুকুরটির মালিক তা করেননি। ফলে কুকুরটির গায়ের লোম বড় হতে হতে প্রায় কেশরে পরিণত হয়েছে। তার যে লোম ছাঁটাটা অত্যন্ত দরকারি তা কুকুরটিকে একবার দেখেই বোঝা যায়। মোলিনা দে সেগুরা-র স্থানীয় পুলিশ বাহিনীও এই বিষয়ে একমত। যেভাবে কুকুরটি ওই এলাকায় আতঙ্ক সৃষ্টি করেছিল, তাতে কুকুরটির মালিককে যে এই নিয়ে কী পরিমাণ ভাষণ শুনতে হয়েছে তা কল্পনা করা কঠিন নয়।

পুলিশের পোস্টটি নেট দুনিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। অনেোক মানুষ টুইটটি রিটুইট করেছেন এবং লাইক করেছেন। আর কমেন্টস সেকশন তো হাস্যকর সব প্রতিক্রিয়ায় ভর্তি হয়ে গিয়েছে। পুলিশ বিভাগ নিজেই মজা করে কুকুরটির একটি এডিট করা ছবি প্রকাশ করছে। যেন কুকুরটির ভাবছে 'শান্ত এজেন্ট, দারুণ দারুণ'।

আর নেটিজেনদের এই সিংহরূপী কুকুরকে দেখে মাথায় এসেছে 'প্রত্যাশা বনাম বাস্তবতা'র ভাবনা। একজন একটি আসল সিংহের সঙ্গে কুকুরটির ছবি প্রকাশ করে লিখেছেন, 'অনলাইনে যা অর্ডার করা হয়েছিল, আর যা এসেছে'। এইরকম নানান মজার মজার মিম ও অন্যান্য মন্তব্য ছেয়ে গিয়েছে ভিডিওটি কেন্দ্র করে।