ভারতবর্ষে প্রথম এই ধরণের কোনও পদক্ষেপ নেওয়া হতে চলেছে। মহারাষ্ট্রসরকারের তরফে নেওয়া হয়েছে এক অভিনব সিদ্ধান্ত। মহারাষ্ট্র স্টেট রোড ট্রান্সপোর্ট কর্পোরেশন-এর বাস চালানোর ভার দেওয়া হল সেখানকার আদিবাসী মহিলাদের। 

এই পাইলট প্রকল্পে এখনও পর্যন্ত বেছে নেওয়া হয়েছে ১৬৩ জন আদিবাসী মহিলাকে। বাসের মতো বড় যানবাহন চালানোর জন্য তাঁদের প্রশিক্ষণও দেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে। প্রশিক্ষণ শেষ হলেই তাঁদের বাস চালানোর কাজে নিয়োগ করা হবে। একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে রাজ্যের পরিবহন মন্ত্রী দিবাকর রাভতে জানিয়েছেন সরকারের তরফে মহিলা চালকের নিরাপত্তার ওপর আরও বেশি করে নজর দেওয়া হবে। তবে এই ধরণের পদক্ষেপ এদেশে প্রথম। মহিলাদের সুরক্ষা সুনিশ্চিত করতে আমরা চুক্তিবদ্ধ হয়েছি। 

শুক্রবার দেশের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রতিভা পাতিল মহিলাদের বাস চালক হিসাবে প্রশিক্ষণ ও নিয়োগের বিষয়ে পরিবহন দফতরের এই উদ্যোগটির উদ্বোধন করেন। তবে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রতিভা পাতিল এদিন জানিয়েছেন যে, মহারাষ্ট্র স্টেট রোড ট্রান্সপোর্ট কর্পোরেশন-এর উচিত নয় মহিলা চালকদের বাড়ি থেকে বেশি দূরে পাঠানো। তিনি প্রশাসনের কাছে আরও আর্জি জানান যে, রাতে যদি কোথাও থাকতে হয়, তাহলে প্রশাসনের উচিত তাঁদের রাত্রিবাসের জন্য যথাযথ ব্যবস্থাও যাতে করা হয়, সেই বিষয়টিতে জোর দিয়েছেন তিনি। 

তবে তিনি আরও বলেন, মহিলাদের শিক্ষার আলোয়ে আলোকিত করা এবং তাঁদের উন্নয়ন ও প্রগতির পথে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া আদতে দেশের উন্নতিতে  এগিয়ে নিয়ে যাওয়া। আদিবাসী সম্প্রদায় জাতির এক গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ বলেও মন্তব্য করেন তিনি।