এদেশে পা রাখার আগে ভারত সফর নিয়ে একাধিকবার ট্যুইট করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এমনকি বিমানে উঠেও ট্যুইট করতে ভোলেননি ডোনাল্ড ট্রাম্প। সকলকে চমকে দিয়ে ভারত পা রাখার ঘণ্টা খানেক আগে হিন্দিতে ট্যুইট করতে দেখা গেছে মার্কিন প্রেসিডেন্টকে। আহমেদাবাদে পা রেখেই বন্ধু মোদীর সঙ্গে আলিঙ্গনবদ্ধ হয়েছেন ট্রাম্প। সবরমতী আশ্রমে গিয়ে কেটেছেন চরকাও। সেখান থেকেই ট্রাম্পের কনভয় রওনা দেয় মোতারে স্টেডিয়ামে তার জন্য আয়োজিত 'নমস্তে ট্রাম্প'  অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার জন্য।

আরও পড়ুন: বন্ধুকে দেওয়া কথা রাখতে পেরে স্বস্তিতে মোদী, মোতেরার ভিড় দেখে মুগ্ধ মার্কিন প্রেসিডেন্ট

মোতেরা স্টেডিয়ামে পৌঁছে ফের একবার প্রকাশ্যে বন্ধু নরেন্দ্র মোদীকে সহাস্যে জড়িয়ে ধরতে দেখা যায় প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে। সকলকে অবাক করে দিয়ে নমস্তে উচ্চারণের মধ্যে দিয়ে বক্তৃতা শুরু করেন ট্রাম্প। ভাষণে মোদীর অতিথি আপ্যায়নের প্রশংসা বারবার শোনা গেছে ট্রাম্পের গলায়। তিনি এবং ফার্স্টলেডি মেলানিয়া যে এই সফরের কথা সারাজবীন মনে রাখবেন সেকথাও জানিয়েছেন ট্রাম্প।

 

 

মোতেরা স্টেডিয়ামে লক্ষাধিক উৎসাহী মানুষের সামনে বন্ধু মোদীর প্রশংসা শোনা গেছে ট্রাম্পের গলা।  চা-ওয়ালা থেকে দেশের নেতা হয়ে ওঠায় মোদির সংগ্রামী জীবন-কে কুর্নিশ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। বলেছেন, যে রাত দিন জেগে দেশের জন্য কাজ করেন আমি তাঁকে আমার সত্যিকারের বন্ধু নরেন্দ্র মোদী নামে চিনি। তাংর জমানায় ভাতের আয় বেড়েছে ৬ গুণ। মোদীর আমলে বাড়ি বাড়ি গ্যাস পৌঁছেছে, গ্রামে গ্রামে এসেছে বিদ্যুত, ঘরে ঘরে পৌঁছেছে ইন্টারনেট। সেই কারণেই গত লোকসভা ভোটে নজিরবিহীন জয় পেয়েছেন মোদী। তাই সকলেই তাঁকে ভালবাসে। 

 

 

ভারতের বহুত্ববাদ ও সংস্কৃতির কথাও উল্লেখ করতে ভোলেননি ট্রাম্প। বোলেছেন, ভারতের একতা বিশ্বের কাছে অনুপ্রেরণা। তখন হাততালিতে ভেসে যাচ্ছে গোটা মোতেরা। ট্রাম্পের বক্তব্য শুনে হাসি মোদীর মুখেও। 

আরও পড়ুন: মোদীকে পাশে নিয়ে চরকা কাটলেন ট্রাম্প, ঘুরে দেখলেন সবরমতী আশ্রম

ভারতীয়দের কর্মদক্ষতার কথাও উল্লেখ করতে ভোলেননি মার্কিন প্রেসিডেন্ট। সেখানেও টেনে এনেছেন মোদীর প্রসঙ্গ।  বলেছেন, আমেরকিরা হৃদয়ে অনেক বড় জায়গা রয়েছে ভারতের। আমেরিকা ভারতকে শ্রদ্ধা করে। আমেরিকা ভারতের সদা বিশ্বস্ত বন্ধু।