অষ্টম মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসাবে এদেশে পা রাখলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। বিমানবন্দরে ট্রাম্পকে স্বাগত জানাতে বিশেষ আতিথেয়তার ব্যবস্থা করেছিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। মোদী নিজেও উপস্থিত হয়েছিলেন বিমানবন্দরে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প বিমানবন্দরে নামতেই নাচে-গানে শঙ্খ বাজিয়ে ভারতীয় রীতিতে তাঁদের স্বাগত জানান হয়। এরপরেই মোদী ও ট্রাম্পের কনভয় রওনা দেয় গান্ধীজির স্মৃতি বিজড়িত সবরমতী আশ্রমে। 

আরও পড়ুন: সপরিবারে ভারতে পৌঁছলেন ট্রাম্প, জড়িয়ে ধরে বন্ধুকে স্বাগত জানালেন মোদী

নিজের লিমুজিন দ্য বিস্টে করেই সবরমতী আশ্রমের দিকে রওনা দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ও ফার্স্ট লেডি।  দু'পাশের ব্যারিকেডে তখন মার্কিন প্রেসিডেন্টকে দেখতে  উৎসাহী মানুষের ভিড় উমচে পড়ছে। দুপুর ১২টা ২৭ মিনিটে সবরমতী আশ্রমে পৌঁছন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। শ্বেত উত্তরীয় পরিয়ে তাঁকে উষ্ণ অভ্যর্থনায় স্বাগত জানায় আশ্রম কর্তৃপক্ষ। 

 

 

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে সঙ্গে নিয়েই গান্ধীজির মূর্তিতে মাল্যদান করেন ট্রাম্প ও মোলানিয়া। এরপর উপস্থিত হন আশ্রমের ভিতরে চরকা কাটার জায়গায়। নিজেই স্বয়ং চরকা কাটার চেষ্টা করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। আশ্রমের কর্মীদের থেকে চারকার কাজও বিশদে বুঝতে দেখা গেল ট্রাম্পকে। পাশে তখন দাঁড়িয়েছিলেন মোদী। এরপর আশ্রম চত্বর ঘুরে দেখে ভিডিটার্স বুকে নিজের বয়ান লিখলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। 

 

 

আশ্রমে মোদী ও মেলানিয়াকে পাশে বাসিয়ে ছবিও তোলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। ট্রাম্পের সঙ্গেই সবরমতী আশ্রম পরিদর্শনে সঙ্গী হয়েছিলেন তাঁর কন্যা ইভাঙ্গা ও জামাই কুশনার। 

আরও পড়ুন: মোদী-ট্রাম্পের পাশে হাজির বাঙালির ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডরও, মোতেরায় পৌঁছে গেলেন সৌরভ

এদিন গান্ধীজির তিন বাঁদরের কাহিনীও ট্রাম্পকে বোঝাতে দেখা যায় মোদীকে। সবরমতী আশ্রম পরিদর্শন করে এরপর মোতেরার পথে রওনা দেয় ট্রাম্পের কনভয়। যেখানে 'নমস্তে ট্রাম্প' অনুষ্ঠানে তাঁকে স্বাগত জানাতে অপেক্ষা করছেন এক লাখেরও বেশি মানুষ।