ভোটের মাঝে ফের রক্তাক্ত হল দন্তেওয়ারা। গোন্দেরাসের জঙ্গলে সেনা ও মাওবাদীদের গুলির লড়াইয়ে নিহত হয়েছে ১ জন মাওবাদী। বাজেয়াপ্ত হয়েছে ১টি ইনসাস, বারোটি ১২ টি বোর , বেশ কিছু কার্তুজ ও  অন্যান্য অস্ত্রশস্ত্র। 

এদিন ভোর পাঁচটার সময়ে আরানপুর অঞ্চলের গোন্দেরাসোর জঙ্গলে মাওবাদীদের ঘাটির ওপর অতর্কিতে হামলা চালায় সেনা।  সংবাদসংস্থার তরফে জানানো হয়েছে এই হামলা সংগঠিত হয়েছে এক সময়ে মাওবাদী বলে পরিচিত অথবা তাদের স্ত্রীদের নিয়ে। দলটিতে মহিলা কমান্ডো রয়েছেন ৩০ জন। 
<\p>

<\p> সাত দফার লোকসভা ভোট  শুরু হওয়ার ঠিক দু'দিন আগেই ভয়াবহ মাওবাদী হামলায় নিহত হন বিজেপির বিধায়ক ভীমা মান্ডি-সহ আরও পাঁচজন। ভয়াবহ আইডি বিস্ফোরণে ছত্তিশগড়ের দন্তেওয়ারায় দুমড়ে মুচড়ে যায় এই  বিধায়কের গাড়ি। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় কনভয়ের পাঁচ নিরাপত্তারক্ষীরও। গুরুতর আহত হয়েছেন ছত্তিশগড় রাজ্য পুলিশের পাঁচ কর্মীও। মে মাসের ১ তারিখ গাড়চিরলিতেও দুর্ভাগ্যজনক ভাবে সেনার কনভয়েতে হামলা চালায়  মাওবাদীরা। সেবার মৃত্যু হয় ১৫ জন সেনা ও একজন ড্রাইভারের।

 

তখনই স্থির হয় এর পাল্টা অপারেশন চালানো হবে। দন্তেওয়ারার ভুলভুলাইয়া জঙ্গলে কাটা দিয়ে কাটা তুলতে ভারতীয় সেনা তাই কাঁটা দিয়ে কাঁটা তুলতে পুরনো মাওবাদীদেরই ব্যবহারের পরিকল্পনা নেন। 

লোকসভা নির্বাচনের এখনও দুই দফা বাকি। তারপর ঠিক হবে কে বসবে মসনদে। কিন্তু নির্বাচন শেষ হওয়া ইস্তক আরও রক্তপাত আটকানোটাই বড় চ্যালেঞ্জ সেনার কাছে।