দক্ষিণ কাশ্মীরের সোপিয়ানে ফের সেনা-জঙ্গি সংঘর্ষ। আপেলবাগানে লুকিয়ে থাকা জঙ্গিদের সঙ্গে শুরু হয় সেনার গুলির লড়াই। শেষ পাওয়া খবর পর্যন্ত, যৌথবাহিনীর এই অভিযানে ২ জঙ্গির খতম হওয়ার খবর পাওয়া গিয়েছে। যদিও তাদের পরিচয় এখনও জানা যায়নি।

গত রবিবার থেকে সোপিয়ান এলাকায় লাগাতার জঙ্গিদের বিরুদ্ধে সাফল্য পেয়ে চলেছে ভারতীয় সেনা। রবিবার সোপিয়ানের জৈইনপোরা এলাকায় নিরাপত্তাবাহিনীর এনকাউন্টারে ৫ জঙ্গি খতম হয়। এর ২৪ ঘণ্টা পেরোতে না পেরোতেই সোপিয়ানের পিঞ্জোরা এলাকায় গা-ঢাকা দেওয়া ৪ সন্ত্রাসবাদীকে নিকেশ করে সেনা। সেই ধারা অব্যাহত থাকল বুধবারও। এই নিয়ে গত ৪ দিনে মোট ১১ জঙ্গিকে খতম করল ভারতীয় সেনা। 

আরও পড়ুন: লকডাউন সাপে বর হল, আম আদমির খিদে মিটিয়ে গত ৮ দশকে প্রথমবার রেকর্ড বিক্রি ভারতীয় বিস্কুট সংস্থার

সোপিয়ান জেলার সুগো হেন্দমা এলাকায় বুধবার সকাল থেকেই জঙ্গিদের সঙ্গে এনকাউন্টার শুরু হয় সুরক্ষা বাহিনীর। কাশীর পুলিশ পুলিশের সঙ্গে সেনা যৌথভাবে এই অপারেশন চালায়। কাশ্মীর পুলিশের এক উচ্চপদস্থ কর্তা জানান, সুগু এলাকায় চারদিক থেকে জঙ্গিদের ঘিরে ফেলে অভিযান চালান হয়। 

 

বুধবার ভোররাতেই সূত্র মারফত্‍‌ পুলিশের কাছে খবর যায় সোপিয়ানের একটি আপেল বাগানে লুকিয়ে রয়েছে জঙ্গিরা। এর পরেই কাশ্মীর পুলিশের বিশেষ বাহিনী ও সেনার যৌথ একটি টিম ঘটনাস্থলে পৌঁছে যায়। চার দিক থেকে ঘিরে ফেলা হয় আপেলবাগানটি। সুরক্ষা বাহিনীর এই চক্রব্যূহ ভেদ করে জঙ্গিদের পালানোর রাস্তা ছিল বন্ধ। যৌথ বাহিনীর উপস্থিতি টের পেয়েই আপেল বাগানের আড়াল থেকে গুলি চালাতে শুরু করে জঙ্গিরা। পালটা জবাব দেয় বাহিনীও। ফলে, বুধবার ভোরের আলো ভালো করে ফোটার আগে থেকেই দু-পক্ষের সংঘর্ষ চলতে থাকে। 

আরও পড়ুন: ফের সাফল্য বাহিনীর, কুপওয়ারায় উদ্ধার জঙ্গিদের লোকানো আগ্নেয়াস্ত্র, পাক মর্টার নিষ্ক্রিয় করল সেনা

রবিবার থেকেই সোপিয়ানের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালাচ্ছে যৌথবাহিনী। দক্ষিণ কাশ্মীরের সোপিয়ান এলাকায় বহু জঙ্গি লুকিয়ে রয়েছে বলে খবর রয়েছে যৌথবাহিনীর কাছে।  সুগো হেন্দমা এলাকায় বাকি জঙ্গিদের খোঁজে এখনও তল্লাশি চালাচ্ছে সেনা। 

সোমবার কাশ্মীর পুলিশের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী,  গত ছ’মাসে মোট ৯৩ জন জঙ্গিকে নিকেশ করা গিয়েছে। গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়েছে সীমান্ত বরাবর গজিয়ে ওঠা ৫০০ লঞ্জপ্যাড। বানচাল হয়েছে পুলওয়ামার কায়দার হামলার ছক। এদিকে জম্মু ও কাশ্মীরের ডিজিপি দিলবাগ সিং জানিয়েছেন, গত ২ সপ্তাহে জঙ্গি দমনে কাশ্মীরে মোট ৯টি বড় অভিযান চালান হয়েছে। যাতে প্রাণ গিয়েছে কমপক্ষে ২৪ জন জেহাদির। নিহতদের মধ্যে ৬ জঙ্গি নেতাও রয়েছে। এদিকে রবিবার ও সোমবার সেনার অভিযানে মৃত ৯ জঙ্গই হিজবুল মুজাহিদিনের সদস্য বলে জানিয়েছে সেনা।