অখণ্ড রাজ্য হিসেবে শেষ দিনটা কাটিয়ে ফেলল জম্মু ও কাশ্মীর। মধ্যরাতেই দ্বিখণ্ডিত হতে চলেছে ভূস্বর্গ। বৃহস্পতিবার থেকে যাত্রা শুরু হবে নতুন দুই কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের।  তার আগের দিনই লাদাখের নব নিযুক্ত লেফট্যানেন্ট গভর্নরের পরামর্শদাতা হিসেবে নিয়োগ করা হল আইএএস অফিসার উমঙ্গ নারুলা-কে। এছাড়া আইজি এসএস খান্ডারে-কে নিয়োগ করা হয়েছে লাদাখ কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের পুলিশ প্রধান হিসেবে।

জম্মু-কাশ্মীরের লেফট্যানেন্ট গভর্নর হচ্ছেন গিরিশচন্দ্র মুর্মু আর লাদাখের রাধাকৃষ্ণ মাথুর। দুজনেই এদিন উপত্যকায় এসে পৌঁছেছেন। বৃহস্পতিবার সকালে জম্মু-কাশ্মীর হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি গীতা মিত্তল প্রথমে রাধাকৃষ্ণ মাথুর-কে শপথবাক্য পাঠ করাবেন। আর তারপর তিনি শ্রীনগরে উড়ে গিয়ে শপথবাক্য পাঠ করাবেন গিরিশচন্দ্র মুর্মু-কে।

বুধবার ১৯৮৯ ব্যাচের আইএএস অফিসার নারুলাকে লাদাখের লেফট্যানেন্ট গভর্নর রাধাকৃষ্ণ মাথুর-এর পরাংমর্শদাতা হিসেবে নিয়োগ করা হল। এদিন সন্ধাতেই এই সংরক্রান্ত সরকারি নির্দেশিকা প্রকাশিত হয়। বর্তমানে নারুলা জম্মু কাশ্মীর রাজ্যের রাজ্যপাল সত্যপাল মালিকের মুখ্য সচিব হিসেবে নিযুক্ত ছিলেন। সত্যপাল মালিক গোয়ার রাজ্যপাল হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করছেন।

এসএস খান্ডারে ১৯৯৫ ব্যাচের আইপিএল অফিসার। জম্মু কাশ্মীরেরই বাসিন্দা তিনি। তাঁকেই লাদাখ কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের প্রথম পুলিশ প্রধান হিসেবে নিযুক্ত করা হচ্ছে।