হাথরস কাণ্ডে দেশ জুড়ে প্রতিবাদের ঝড়। তীব্র সমালোচনার মুখে উত্তরপ্রদেশ পুলিশের ভূমিকা। হাথরসে নির্যাতিতা পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে পুলিশের বাধার মুখে পড়েছেন বিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতারা। এমনকি, সাংবাদিকদেরও ঢুকতে বাধা দেওয়া হয়। এই ধরনের একের পর এক ঘটনা প্রকাশ্যে আসার পর এবার উল্টো পথে হাঁটা শুরু করল উত্তরপ্রদেশ পুলিশ। সাংবাদিক সহ বিরোধী নেতাদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলা শুরু করল পুলিশ। 

সূত্রের খবর, রবিবার চাঁদপা থানায় সাংবাদিক ও বিরোধী নেতাদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলা দায়ের করা হয়েছে। এখনও পর্যন্ত অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তির নামে অভিযোগ দায়ের করেছে পুলিশ। পাশাপাশি, হাথরসে ধর্ষণের ঘটনায় অপরাধমূলক ষড়যন্ত্র, দাঙ্গা বাধানো এবং ভুয়ো তথ্য ছড়ানোর অভিযোগে ৬৮০ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অন্যদিকে, ১৪৪ ধারা লঙ্ঘনের অভিযোগে ভীম আর্মির প্রধান চন্দ্রশেখর আজাদের বিরুদ্ধেও মামলা দায়ের করেছে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ।

হাথরস ধর্ষণ কাণ্ডে সম্পর্কিত সোমবার পর্যন্ত গোটা উত্তরপ্রদেশে প্রায় ১৯টি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে বলে সূত্রের খবর। তার মধ্য়ে বেশ কয়েকটি রয়েছে গুরুতর অভিযোগ। ১৩টি অভিযোগ দায়ের হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভুয়ো তথ্য পোস্ট করে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অভিযোগে। হাথরস গণধর্ষণ কাণ্ডে এখনও পর্যন্ত পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।