যেমন ছাত্র, তেমনই তাদের অভিভাবক। অবশ্য এদের আদৌ ছাত্র বলা উটিত কিনা তাই নিয়ে প্রশ্ন তোলা যেতে পারে। কলেজে ছাত্রীদের সঙ্গে অশালীন আচরণ করায় ধমকেছিলেন শিক্ষক। এরপরই বাড়ির লোকজনকে ডেকে এনে ওই শিক্ষককে মাটিতে ফেলে লাঠি বাঁশ দিয়ে বেধারক মারল তারা। ঘটনাটি ঘটেছে যোগী আদিত্যনাথের উত্তরপ্রদেশ রাজ্যের প্রয়াগরাজে।

মঙ্গলবার প্রয়াগরাজের শাস্ত্রীনগরে, আদর্শ জনতা ইন্টার কলেজে একটি স্বাস্থ্যপরীক্ষা শিবিরের আয়োজন করা হয়েছিল। পুলিশ জানিয়েছে সেই স্বাস্থ্য পরীক্ষার শিবিরেই অভিযুক্ত ছাত্ররা ইচ্ছে করে বার বার কিছু ছাত্রীর গায়ে পড়ে যাচ্ছিল। বেশ কয়েকবার এইরকম হওয়ার পর কলেজের এক শিক্ষক তাদের বাধা দেন। কড়া ভাষায় বকাঝকাও করেন।

তখনরকার মতো অভিযুক্ত ছাত্ররা সেখান থেকে চলে গেলেও, এরপরই বাড়ি থেকে লোক ডেকে এনে সকলে মিলে বাঁশ, মোটা লাঠি দিয়ে বেধারক মারধর করে ওই শিক্ষককে। একসময়ে ওই শিক্ষক মাটিতে পড়েও যান। তাতেও মার থামেনি। এমনকী মাটিতে পড়ে যাওয়ার পর তাঁকে লক্ষ করে লাথিও চালাতে দেখা গিয়েছে।

মঙ্গলবারের এই ঘটনার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তেই তীব্র সমালোচনা হয়েছে এই ঘটনার। গোটা শিক্ষা মহল এর প্রতিবাদ জানিয়েছে।

গগনপুরের এসএসপি নগেন্দ্র সিং জানিয়েছেন পুলিশ এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে একটি মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু করেছে। ভিডিও দেখে অপরাধীদের চিহ্নিত করা হচ্ছে। খুব তাড়াতাড়ি তাদের সকলকে আটক করা হবে।