ফের এক চাঞ্চল্যকর ঘটনা যোগী-রাজ্যে। উত্তরপ্রদেশের বুলন্দশহর জেলায় পরিবারের সদস্যকে কুকথা বলার প্রতিবাদ করায় দুই মহিলাকে গাড়ি চাপা দিয়ে পিষে হত্য়া করা হল। তবে প্রধান নকুল সিং-কে ইতিমধ্যেই গ্রেফতার করা হয়েছে। তার আরও চার সঙ্গীর বিরুদ্ধেও মামলা রুজু করা হয়েছে। তবে তারা গা ঢাকা দিয়েছে। তাদের জরুরি ভিত্তিতে গ্রেফতারের দাবিতে হাইরোডে মৃতদেহ নিয়ে পথ অবরোধও করা হয়। পরে অবশ্য পুলিশের আশ্বাসে অবরোধ তুলে নেওয়া হয়।

বুলন্দশহরের এসএসপি এন কোলাঞ্চি জানিয়েছেন, গত সোমবার (২৪ জুন) রাতে  এক বিয়েবাড়ির অনুষ্ঠান থেকে বাড়ি ফিরছিলেন স্থানীয় বাসিন্দা রামবীরের স্ত্রী শান্ত দেবী ও ভীমসেন-এর স্ত্রী উর্মিলা। সেই সময়ই তাঁরা দেখেন বাড়ির দেওয়ালে প্রস্রাব করছেন নকুল সিং। তাঁরা বাধা দিলে পরিবারের আরেক মহিলাকে নকুল কুকথা বলেন বলেন। তার প্রতিবাদ করলে নকুল হুমকি দিয়ে তখনরাকার মতো চলে যামন।

খানিক বাদেই ফের বন্ধুবান্ধবের সঙ্গে একটি গাড়ি নিয়ে এসে তাদের চাপা দিয়ে পিষে মারেন। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় শান্ত দেবী ও উর্মিলার। আহত হন রামবীরের ছেলে।