ডুবন্ত জাহাজ বাঁচানোর শেষ চেষ্টা হিসেবে এবার ইডির বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে গেলেন বিজয় মালিয়া। প্রায় ৬২০০ কোটি টাকার আর্থিক টছরুপের দায়ে অভিযুক্ত এই বিজনেস টাইকুনকে ইংল্যান্ড থেকে ভারতে প্রত্যর্পনের কাজ চলছে। এরমধ্যেই ২০১৮ সালের ফিউজিটিভ ইকোনমিক অফেন্ডার্স অ্যাক্ট অনুসারে তাঁর একের পর এক সম্পত্তি দখল করছে এনফোর্সমেন্ট ডাইরেক্টরেট। আর এই বিষয়ে ইডির সাংবিধানিক অধইকার নিয়েই প্রশ্ন তুলেছেন মালিয়া।

এর আগে বম্বে হাইকোর্টে একই বিষয়ে আবেদন জানিয়েও সুরাহা হয়নি। এইবার সুপ্রিম কোর্টে ফিউজিটিভ ইকোনমিক অফেন্ডার্স অ্যাক্ট অনুযায়ী কর্তৃপক্ষকে লাগামহীন ক্ষমতা দেওয়াটা কতটা সাংবিধানিক সেই বিষয়ে প্রশ্ন তুলে মামলা দায়ের করেছেন কিংফিশাররে মালিক। সোমবার সম্ভবত আদালত তাঁর আবেদন শুনবে।

এর আগে বম্বে হাইকোর্টে একই প্রশ্ন তুলে আবেদন করেছিলেন মালিয়া। মুম্বই-এর এক বিশেষ আদালতে সেই মামলার শুনানি চলছে। মালিয়া আরও আবেদন করেছিলেন এই মামলার শুমনানি শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাঁর সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার কাজ স্থগিত রাখা হোক। কিন্তু, তা মানেনি বম্বে হাইকোর্ট।