সাতসকালে লখনৌ-তে খুন হলেন বিশ্ব হিন্দু মহাসভার এক নেতা। রাস্তার উপরই তাঁকে গুলি করে খুন করল বাইক চড়ে আসা কয়েকজন দুষ্কৃতী। নিহত ওই হিন্দুত্ববাদী নেতার নাম রঞ্জিত বচ্চন। 

এ দিন সকালে লখনৌ-এর হজরতগঞ্জ এলাকায় প্রাতভ্রমণে বেরিয়েছিলেন ওই নেতা। তখনই আচমকা বাইকে চড়ে এসে বেশ কয়েকজন দুষ্কৃতী রঞ্জিতকে লক্ষ্য করে গুলি চালাতে শুরু করে। ওই নেতার মাথায় একাধিক গুলি করা হয়। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় রঞ্জিত বচ্চনের। 

মৃত নেতা গোরখপুরের বাসিন্দা ছিলেন বলে জানা গিয়েছে। এই হামলায় রঞ্জিতের ভাইয়ের শরীরেও গুলির আঘাত লাগে। তাঁকে নিকটবর্তী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সাতসকালে লখনৌ-এর মধ্যেই এ ভাবে রাস্তার উপরে হিন্দুত্ববাদী নেতার উপরে আক্রণের ঘটনায় রীতিমতো আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। 

লখনৌ পুলিশ-এর  ডিসিপি সেন্ট্রাল দীনেশ সিং বলেন, 'মৃতের নাম দীনেশ সিংস বলে জানা গিয়েছে। প্রাতভ্রমণের সময়ই তাঁর উপরে বাইক-এ চড়ে আসা দুষ্কৃতী হামলা চালিয়েছে। একটি দল গঠন করে তদন্ত শুরু করা হয়েছে।'

হিন্দু মহাসভার সঙ্গে যুক্ত হওয়ার আগে পর্যন্ত সমাজবাদী পার্টির সদস্য ছিলেন রঞ্জিত। মাঝেমধ্যেই উত্তরপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদবের সঙ্গে দেখা যেত তাঁকে। এই হত্যাকাণ্ডের পর পরই রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে যোগী আদিত্যনাথ সরকারকে কাঠগড়ায় তুলেছে সমাজবাদী পার্টি।