শুক্রবার সকালে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান মন্ত্রক জানিয়েছে, গত ২৪ ঘন্টায় ভারতে ১৮,১৩৯ টি নতুন করোনভাইরাস সংক্রমণের ঘটনা নথিভুক্ত করা হয়েছে। এর ফলে দেশের মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যাটা ১ কোটি ৪ লক্ষ ছাপিয়ে গিয়েছে (১,০৪,১৩,৪১৭)।

আর এর মধ্যে সক্রিয় কেস অর্থাৎ চিকিৎসাধীন রোগী রয়েছেন ২,২৫,৪৪৯ জন। বৃহস্পতিবার সামান্য হলেও বেড়েছিল চিকিৎসাধীন রোগী সংখ্যা। স্বাস্থ্য মন্ত্রক জানিয়েছে একদিনে ২,৬৩৪ জন চিকিৎসাধীন রোগীর ভার কমেছে। আর গত ২৪ ঘন্টায় কোভিড জনিত কারণে মৃত্যু হয়েছে ২৩৪ জনের। ফলে ভারতে কোভিডে মৃতের সংখ্যা পৌঁছেছে ১,৫০,৫৭০-এ।

দুটি কোভিড টিকা ভারতে জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন পাওয়ার পর থেকে টিকাকরণ অভিযান শুরু হওয়ার প্রত্যাশা করছে দেশ। এদিন দেশব্যাপী সরকার টিকারণের দ্বিতীয় মহড়া আয়োজন করছে। ৩৩ টি রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে চলবে মহড়া। এই মহড়ার প্রস্তুতির বিষয়ে বৃহস্পতিবারই কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডাক্তার হর্ষ বর্ধন রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলির স্বাস্থ্যমন্ত্রী এবং মুখ্য সচিব বা অতিরিক্ত মুখ্য সচিবদের সঙ্গে ভিডিও বৈঠক করেছেন।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক জানিয়েছে, ১৯ টি রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল তাদের সরবরাহকারীদের মাধ্যমে কোভিড -১৯ টি ভ্যাকসিন পাবে, আর বাকি ১৮ টি রাজ্য বা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল ভ্যাকসিন পাবে সরকারী মেডিকেল স্টোর ডিপো বা জিএমএসডি-গুলির মাধ্যমে। গণ কোভিড টিকাকরণ অভিযানের সঙ্গে জড়িত সরকারি কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, স্বাস্থ্যকর্মী এবং অন্যান্য ফ্রন্টলাইন কর্মীদের আগামী বুধবার থেকেই টিকা দেওয়া শুরু করা হতে পারে।