আরও একবার ইতিহাসের অপেক্ষায় প্রহর গুণছে দেশে। এয়ার ইন্ডিয়া। এবার এয়ার ইন্ডিয়ার মহিলা পাইলটদেক একটি দল বিশ্বের দীর্ঘতম পথ অতিক্রম করবে। সানফ্রান্সিকো থেকে বিমানটি রওনা দেবে। ১৬ হাজার কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে বিমানটি বেঙ্গালুরু থেকে এসে থামবে। এয়ার ইন্ডিয়ার মহিলা দলটির নেতৃত্বে থাকবেন ক্যাপ্টেন জোয়া আগরওয়াল। 

জোয়া এক আগে আরও একটি নজুর গড়েছিলেন। তিনি বিশ্বের সবথেকে কমবয়সী মহিলা পাইলট যিনি ২০১৩ সালে বোয়িং ৭৭৭ উড়েয়েছিলেন। এবারই আরও একটি ইতিহাস তৈরি অপেক্ষায় রয়েছেন তিনি। জোয়া এই দায়িত্ব পাওয়ার জন্য অত্যান্ত গর্বিত বলেও জানিয়েছেন। তাঁকে ও তাঁর দলের সদস্যদের এই দায়িত্ব দেওয়ার জন্য তিনি বেসামরিক বিমান পরিবহন মন্ত্রক ও সংস্থার আধিকারদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন অনেক পাইলট রয়েছেন যাঁরা জীবনদশায় উত্তর মেরুর ওপর দিয়ে বিমান চালানোর সুযোগ পান না। তিনি জানিয়েছেন তাঁর দলের সদস্য ক্যাপ্টেন থানমাই পাপাগরি, আকঙ্খা সোনেওয়াল ও শিবানী মানহাস ৯ জানুয়ারির জন্য অপেক্ষা করে রয়েছেন। 

এয়ার ইন্ডিয়ার এক আধিকর্তা জানিয়েছেন, উত্তর মেরুর ওপর দিয়ে বিমান চালানো খুবই চ্যালেঞ্জিং। প্রক্যেত বিমান পরিবহন সংস্থাই তাই এই রুটে অভিজ্ঞ পাইলটদের দায়িত্ব দিয়ে থাকে। আর জোয়ারা সেই দায়িত্ব পালন করতে পারবে বলেও আশা প্রকাশ করেছেন তিনি। অন্যদিকে জোয়া বলেছেন, এটা খুবই উত্তেজনার, কারণ উত্তর মেরু যখন পার হব তখন, কম্প্যাসটি ১৮০টি ঘুরে যাবে। এক বিশেষজ্ঞ চালকের কথায় এই সফর এতটাই কঠিন যে সাফল্য পাওয়ার জন্য চূড়ান্ত দক্ষতা প্রয়োজন। পাশাপাশি প্রযুক্তিগত প্রশিক্ষণ ও অভিজ্ঞতার প্রয়োজন হয়। 

এর আগেও এয়ার ইন্ডিয়ার পাইলটরা এই কঠিন পথ অতিক্রম করেছেন। কিন্তু জোয়াই হবেন প্রথম মহিলা পাইলট যিনি পার হবেন এই কঠিনতম পথ। তবে এটাই প্রথমবার যখন ভারতীয় মহিলাদের দল এই পথে উড়ানের নেতৃত্ব দেবেন।