এ যেন যত কীর্তি জোমাটো-তে। সম্প্রতি সামনে এসেছিল প্যাকেটবন্দি খাবারের সিল কেটে জোমাটো ডেলিভারি বয়ের খাবার চুরির ভিডিও। এবারও অপহরণকাণ্ডেও নাম জড়াল জোমাটোর। না কোন জলজ্যান্ত মানুষকে অপহরণ নয়, জোমাটোর ডেলিভারি বয় এবার কুকুর চুরি করে পলাতক। ঘটনাটি ঘটেছে পুনেতে। 

পুনার বাসিন্দা বন্দনা শাহ টুইটারে জোমাটোর ডেলিভারি বয়ের বিরুদ্ধে কুকুর অপহরণের অভিযোগ এনেছেন। বন্দনা তাঁর টুইটে অভিযোগ করেছেন, দত্তু নামে প্রিয় পৌষ্যটিকে অনেকক্ষণ ধরে তিনি দেখতে পাচ্ছিলেন না। শেষমেশ তিনি দত্তুর খোঁজ শুরু করেন। সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখে বন্দনা নিশ্চিত হন যে দত্তু নামে বিশেষ প্রজাতির ওই কুকুরটি বাড়ির পাশে একটি খোলা জায়গায় ঘোরাফেরা করছিল। 

পুলিশের কাছেও নাকি সাহায্য চেয়েছিলেন বন্দনা। তাঁর অভিযোগ, পুলিশ সাহায্য করা তো দূরে থাক কোনও অভিযোগই জমা করতে চায়নি। শেষমেশ বন্দনা ওই খোলা জমির লাগোয়া একটি রোস্তোরাঁর সামনে দত্তুকে খুঁজতে যান। সেখানে থাকা জোমাটোর এক ডেলিভারি বয় নাকি দাবি করেন, দত্তুকে তিনি তাঁর এক সহকর্মী ডেলিভারি বয়ের সঙ্গে দেখেছিলেন। 

বন্দনা জানিয়েছেন, অভিযুক্ত জোমাটো ডেলিভারি বয়ের নাম তুষার। এমনকী, তুষারকে নাকি বন্দনা ফোনও করেছিলেন। দত্তুকে চুরির কথা স্বীকারও নাকি করেছেন তুষার। এমনই দাবি বন্দনার। কিন্তু, তুষার নাকি দত্তু-কে ফেরত দিতে অস্বীকার করেন। তুষার নাকি এমনও দাবি করেছেন যে তিনি দত্তুকে তাঁর গ্রামের বাড়িতে পাঠিয়ে দিয়েছেন। দত্তুকে ফেরত পেতে তুষার তিনি অর্থও নাকি দিতে চেয়েছিলেন বলে জানিয়েছেন বন্দনা। তুষার এতেও রাজি হননি। উল্টে মোবাইল ফোনের সুইচ অফ করে রেখেছেন বলেও অভিযোগ করেছেন বন্দনা। যদিও, টুইট দেখে জোমাটো কর্তৃপক্ষ নাকি ইতিমধ্যেই বন্দনার সঙ্গে যোগাযোগ করেছে।