সৌদি আরবে ভারি গাড়ির সঙ্গে পুণ্যার্থী বোঝাই একটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে  সৌদির মোদিনায় ৩৫ জন বিদেশি পর্যটকের মৃত্যু হয়েছে।  সৌদি আরবের স্থানীয় সংবাদমাধ্যম এক বিবৃতিতে জানিয়েছে,  পুণ্যার্থী বোঝাই একটি বেসরকারি বাসের সঙ্গে লোডারের সংঘর্ষ হয়। ঘটনায় চার জন আহত হয়েছেন। আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা গুরুতর বলে জানা গিয়েছে। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে স্থানীয় প্রশাসন আশঙ্কা প্রকাশ করেছে।  ঘটনায় মৃতদের পরিবারের প্রতি শোকপ্রকাশ করেছেন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আহতদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করেন তিনি।

 

সৌদি আরবের স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, আহত ও মৃতরা সকলেই এশিয়া এবং আরবের বিভিন্ন দেশ থেকে তীর্থ(উমরাহ) করতে সৌদি আরবে এসেছিলেন। দুর্ঘটনার পর বাসটিতে আগুন ধরে যায়। বাসের জানলাগুলো ভেঙে যায় বলে জানা গিয়েছে। আহতদের আল-হামনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হতাহতরা কোন কোন দেশের নাগরিক, সেই বিষয়ে সৌদি প্রশাসনের তরফে কোনও বিবৃতি প্রকাশ করা হয়নি। সৌদি প্রশাসন এক বিবৃতি জানিয়েছে, ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে।  প্রতিবছর তীর্থযাত্রা করতে কয়েক লক্ষ ইসলাম ধর্মাবলম্বী মানুষ সৌদি আরবে ভিসা নিয়ে আসেন।  কিন্তু সৌদি দেশটাকে ঘুরে দেখার জন্য চলতি বছর থেকে সৌদি প্রশাসন পর্যটন ভিসা চালু করার পরিকল্পনা নিয়েছে। 

২০১৮ সালের এপ্রিলে তেলের ট্যাংকারের সঙ্গে বাসের সংঘর্ষে চার ব্রিটিশ পুন্যার্থীর মৃত্যু হয়েছিল। ঘটনায় ১২ জন আহত হয়েছিলেন। ২০১৭ সালে সৌদি আরবের মক্কাতে একটি বাস দুর্ঘটনায় দুই মাসের শিশু-সহ ছয় ব্রিটিশ নাগরিকের মৃত্যু হয়। অন্য দিকে, ২০১৭ সালে হজে ২,৩০০ জন পুন্যার্থী পদপৃষ্ঠ হয়ে মারা যান।