তাইওয়ান কাইট ফেস্টিবালে আসা দর্শনার্থীরা একটি ভয়ঙ্কর ঘটনার সাক্ষী থাকল। রবিবার ছিল ঘুড়ি উৎসব। যেখানে হাজির ছিলেন প্রচুর মানুষ। আর এই ঘুড়ি উৎসবেই একটি তিন বছরের শিশু কন্যাকে উড়িয়ে নিয়ে যায় ঘুড়ি। যা নিয়ে রীতিমত হুলস্থুল পড়ে যায় উৎসবে আসা দর্শনার্থীদের মধ্যে। 

প্রত্যক্ষদর্শীদের কথায় তিন বছরের ওই শিশুটি ঘুড়ির সঙ্গে প্রায় ১০০ ফুট বা তিরিশ মিটার পর্যন্ত আকাশে উড়ে গিয়েছিল। আর শিশুটি রীতিমত ভয়পেয়ে যায়। যখন উৎসবে আসা দর্শকদের নজরে পড়ে তখন  সবাই চিৎকার শুরু করে দেন। প্রায় তিরিশ সেকেন্ড পর ঘুড়িটিকে নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। তারপরই ধীরে ধীরে মাটিয়ে নামিয়ে এনে উদ্ধার করা হয় শিশুটিকে।  


তাইওয়ানের একটি সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে শিংচু শহরে শহরে ঘুড়ি উৎসব হচ্ছিল। এই এলাকায় এই সময়টা তীব্র বেগে হাওয়া বয়। যাকে স্থানীয়রা ঝড়ের সঙ্গে তুলনা করেছেন। স্থানীয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানান হয়েছিল ঘুড়ি ওড়ানো দেখতে এসেছিল ছোট্ট মেয়ে লোন। কোনও ভাবে তীব্র হাওয়ায়  একটি ঘুড়ির লেজ তার শরীরে জড়িয়ে যায়। তারপরই লোন ঘুড়ির সঙ্গে উড়ে যায় আকাশে। যদিও এই ভয়ঙ্কর ঘটনায় লোনের তেমন কোনও শারীরিক ক্ষতি হয়নি। দুই একটি জায়গা কেটে গেছে। 


তবে এই দুর্ঘটনার কারণে অনুষ্ঠান সংক্ষেপে সেরে ফেলা হয়। তবে ভয়ঙ্কর এই ঘটনার ভিডিওটি সঙ্গে সঙ্গেই ভাইরাল হয়ে যায়। নিমেষে নেটিজেনরা তা ভাগ করে নেন নিজেদের মধ্যে।