অস্ট্রেলিয়া নিউ সাউথ ওয়েলসে ভয়াবহ দাবানল বিশ্বের শিরোনামে চলে এসেছিল। অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলসের ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে স্থানীয়  বাসিন্দারা আটকা পড়েছিলেন। স্থানীয় বাসিন্দাদের দেশের দমকলকর্মীদের আন্তরিক চেষ্টায় উদ্ধার করা সম্ভব হলেও, বাঁচানো যায়নি ১৫০টি বাড়ি। তবে দাবানলের তাণ্ডবলীলা থেকে বেশ কিছু বাড়ি উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। সেখানেই থেকেই মিলল দমকল কর্মীদের একটা চিরকুট। দমকল কর্মীদের এই চিরকুটে  মন ছুঁয়ে গেল বিশ্ববাসীর। 

মা দিলেন পরীক্ষা, আর বাচ্চা পেল এমন যত্ন-আত্তি, অসমের কাহিনি এখন মুখে মুখে

দাবানলের আগ্রাসন শেষ হওয়ার পরেই ত্রাণ শিবির থেকে স্থানীয় বাসিন্দারা ঘরে ফিরতে শুরু করেছে। সেই রকম এক বাসিন্দা ঘর থেকে একটা চিরকুট পান। সেই চিরকুটে লেখা রয়েছে, দাবানল থেকে আপনাদের ঘরকে রক্ষা করতে পেরে আমাদের বেশ ভালো লাগছে। কিন্তু আপনাদের ঘরে থাকা দুধ আমরা পান করেছি। তার জন্য আমরা দুঃখিত। পল সেফকি নামের বাড়ির মালিক ফেসবুকে এই বিষয়ে একটা পোস্টও দেন। এই পোস্টটি প্রকাশ পাওয়ার পরেই মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে যায়।  চিরকুটে স্পষ্ট করে দেওয়া হয়, এটি অস্ট্রেলীয় দমকল বিভাগের। 

হ্রদের জলে ভাসছে হাজার হাজার পাখির মৃতদেহ, অভূতপূর্ব ঘটনায় রাজস্থানে ঘনাচ্ছে রহস্য

ফেসবুকে তাঁর এই পোস্টের নীচে কমেন্ট করেছেন এমন ব্যক্তি যিনি সেদিন অস্ট্রেলীয় দমকল কর্মীদের  সঙ্গে ছিলেন। তিনি জানিয়েছেন, চিঠিটি আপনি পেয়েছেন দেখে খুশি হয়েছি। সেদিন আমরা দাবানলে আটকে পরা কিছু স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে ওখানে আশ্রয় নিয়েছিলাম। কোথাও কোনও জল বা খাবার ছিল না। আপনাদের ফ্রিজের দিকে নজর যায়। সেখানে দুধ দেখতে পেয়ে, আমরা খাই। তিনি আরও মন্তব্য করেছেন, সেই সময়  আবহাওয়া অত্যন্ত  ছিল। শুষ্ক আবহাওয়ায় সবাই তৃষ্ণার্ত ছিলেন।  অস্ট্রেলিয়ার ভয়াবহ দাবানলে স্থানীয় ৬০০টি স্কুল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।