ভারতে আসার জন্য তিনি উদগ্রীব হয়ে রয়েছেন। হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে দিন ঘোষণার পর নিজেই সেকথা বলেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এবার ট্যুইট করলেন ট্রাম্প। জানালেন এই সফরের জন্য তিনি দিন গুণছেন। এর মাঝেই অবশ্য স্বভাব সুলভ ভঙ্গিতে নিজের প্রচার করতে ছাড়লেন না মার্কিন প্রেসিডেন্ট। বিশ্বে জনপ্রিয়তার নিরিখে তিনিই এক নম্বরে, ফেসবুকের উল্লেখ করে দাবি করলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

ট্যুইটারে ট্রাম্প লিখেছেন, "আমি মনে করি এটা একটা বড় সম্মান। মার্ক জুকারবার্গ সম্প্রতি জানিয়েছেন, ডোনাল্ড ট্রাম্প ফেসবুকে ১ নম্বরে রয়েছেন। ভারতের প্রধানমন্ত্রী মোদী রয়েছেন ২ নম্বর স্থানে। আমি আগামী ২ সপ্তাহের মধ্যে ভারতে যাচ্ছি। তাই এখন এই সফরের জন্য দিন গুণছি।"

 

 

ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জুকারবার্গ স্বয়ং মার্কিন প্রেসিডেন্টকে এই খবর জানিয়েছেন বলে দাবি করেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। চলতি সপ্তাহেই হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে মার্কিন প্রেসিডেন্টের ভারত সফরের দিন ঘোষণা করা হয়েছে। এর আগে ভারতের বিদেশ মন্ত্রকের পক্ষ থেকে মার্কিন প্রেসিডেন্টের এদেশে আসার ইজ্ঞিত দেওয়া হয়েছিল।

 

 

স্ত্রী মেলানিয়া ট্রাম্পকে নিয়ে আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারি ২ দিনের সফরে ভারতে আসছেন ট্রাম্প। রাজধানী দিল্লির পাশাপাশি নরেন্দ্র মোদীর নিজের রাজ্য আহমেদাবাদেও সফর করবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। এই সফর নিয়ে প্রথম থেকেই উচ্ছাস প্রকাশ করেছেন ট্রাম্প। সাংবাদিক সম্মেলনেও সেই উচ্ছাস চেপে রাখেননি তিনি। মার্কিন প্রেসিডেন্টের এই সফর নিয়ে আশাবাদী মোদী সরকারও। ট্রাম্পের ২ দিনের সফরে ভারত ও আমেরিকার মধ্যে একাধিক বাণিজ্য চুক্তি সাক্ষর হতে পারে।

 

 

মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসাবে এই প্রথমবার ভারতে পদার্পণ করতে চলেছেন ট্রাম্প। তাঁর এই  সফর নিয়ে গত সপ্তাহেই মোদীর সঙ্গে ফোনে কথা বলেছেন ট্রাম্প। গতবছর মার্কিন মুলুকের হাউস্টনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সম্মানে আয়োজন করা হয়েছিল 'হাউডি মোদী' অনুষ্ঠানের। এবার ট্রাম্পের ভারত সফরে আহমেদাবাদে ওই একই ধরণের আয়োজন আয়োজন করা হচ্ছে, যার নাম হচ্ছে 'কেম ছো, ট্রাম্প!' আহমেদাবাদের মোতেরা স্টেডিয়ামে হবে এই অনুষ্ঠান। শোনা যাচ্ছে আহমেদাবাদে ট্রাম্পকে স্বাগত জানাতে হাজির থাকবেন ৫০ থেকে ৭০ লক্ষ মানুষ। এমনটাই নাকি মার্কিন প্রেসিডেন্টকে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী।