এমন একগুচ্ছ সব ছবি যা দেখলে বিশ্বাস করবেন না।  মার খেয়ে কালশিটে পড়ে গিয়েছে সনিয়া গান্ধির চোখের নিচে। রক্তের ছোপ লেগে রয়েছে সারা মুখে। ঠোঁটটাও খানিক ঝুলে গিয়েছে। মুখজুড়ে মার খাওয়ার ছাপ। পাশে দেখা যাচ্ছে ওই একই ছবি। রক্তের ছোপ আর কালশিটে নিয়ে অসহায়ভাবে তাকিয়ে রয়েছেন হিলারি ক্লিন্টন, মিশেল ওবামা, অ্য়াঞ্জেলা মার্কেল থেকে শুরু করে শর্মিলা চানু! 

শুধু এখানেই শেষ নয়। ছবিগুলোর নিচে রয়েছে আরও চমক-- আমি একজন গার্হস্থ্য় হিংসার শিকার। আমি রোজগার করি কম। আমার যৌনাঙ্গ কেটে বাদ দেওয়া হয়েছে। আমার নিজের পছন্দমতো পোশাক পরার স্বাধীনতা নেই। কাকে বিয়ে করব, সেই সিদ্ধান্ত নেওয়ারও অধিকার নেই আমার। আমি ধর্ষিতা হয়েছি।

আসলে মিলানে চলছে  নারী নির্যাতন বিরোধী একটি প্রচার। শিল্পী আলেক্সান্দো পালোমো কথায়, 'নারী নির্যাতনের  কোনও শ্রেণি হয় না, জাত হয় না, কোনও ধর্ম হয় না।' আর তাই  এমন মহিলাদের ছবি তিনি বেছে নিয়েছেন তিনি, যাঁদের পরিচিতি জগতজোরা।

মিলানের রাস্তায় দেখা গিয়েছে এই পোস্টার। প্রচার কর্মসূচির নাম, 'জাস্ট বিকজ আই অ্য়াম আ ওম্য়ান'। সনিয়া গান্ধি, মিশেল ওবামা, অ্য়াঞ্জেলা মার্কেল ছাড়াও ছবিতে রয়েছেন, আমেরিকার ডেমোক্য়াট্রিক কংগ্রেসওম্য়ান আলেকজানড্রিয়া ওকাসিয়ো করটেজ, আমেরিকার প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট পদের প্রার্থী হিলারি ক্লিন্টন, মায়ানমারের আউন সাং সুকি প্রমুখেরা। নারী নির্যাতনে বিরুদ্ধে অভিনব এই প্রচারটি ইতিমধ্য়েই  সাড়া ফেলেছে।