কানাডায় দিন দিন বাড়ছে করোনাভাইরাসে সংক্রমণের ঘটনা। এরমধ্যেই প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর স্ত্রীও এবার আক্রান্ত হলেন এই মারণ ভাইরাসে। গত বৃহস্পতিবারই করোনাভাইরাস আক্রান্তের আশঙ্কায়  নিজেদের স্বেচ্ছা আইসোলেশনে রাখেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী ও তাঁর ৪৪ বছরের স্ত্রী সোফি গ্রেগরি। গত বুধবার এক অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার পর ট্রুডোর স্ত্রী গ্রেগরি খানিকটা অসুস্থ বোধ করেন। এরপরেই ট্রুডো ও গ্রেগরি আইসোলেশন যান। তবে কানাডিয়ান প্রধানমন্ত্রীর শরীরে করোনার লক্ষণ দেখা যায়নি। তবে পরীক্ষায় কোভিড-১৯ পজিটিভ ধরা পড়েছে সোফি গ্রেগরির দেহে। 

আরও পড়ুন: দু'জনে সংসার করেছেন ৬০ বছর, করোনা আক্রান্ত হয়ে একসঙ্গেই মৃত্যু দম্পতির

কানাডায় এখনও পর্যন্ত ৬টি প্রদেশে  প্রায় ১৫০ জনের শরীরে পাওয়া গিয়েছে মারণ করোনা ভাইরাস। ইতিমধ্যে মারা গিয়েছেন এক ব্যক্তি। পরিস্থিতির মোকাবিলা করতে কানাডা সরকার সব রকমের ক্রীড়া ও বিনোদন অনুষ্ঠান বাতিল করেছে। তবে কোয়ারেন্টাইনে থেকেই নিজের কাজ চালাচ্ছেন ট্রুডো। আগামী শনিবার করোনাভাইরাস মোকাবিলায় সচেতনতা বাড়াতে দেশবাসীর উদ্দেশ্যে ভাষণ দেওয়ার কথা রয়েছে তাঁর। 

এদিকে কোরনাভআইরাস সংক্রমণ রুখতে হ্যান্ডশেক পদ্ধতি দূরে সরিয়ে রেখে নমস্কার করার পরামর্শ দিচ্ছেন মার্তিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। হোয়াইট গাউসে বৃহস্পতিবার ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠক ছিল আয়ারল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী লেও বরদকরের। সেই বৈঠকে ভারতীয় সংস্কৃতির নমস্কারেই ভরসা রাখেন দুই রাষ্ট্রপ্রধান। 

 

 

বৈঠক শেষে সাংবাদিকরা ট্রাম্পকে প্রশ্ন করেন, কী ভাবে তিনি বরদকরকে অভিবাদন জানিয়েছেন। প্রত্যুত্তরে ট্রাম্প বলেন, “আমরা হাত মেলায়নি। আমরা একে অন্যের দিকে তাকিয়ে নমস্কার করেছি। একটু অদ্ভুত মনে হচ্ছিল তো বটেই।”

এরপরেই  সাংবাদিকদের ‘নমস্কার’-এর মুদ্রা দেখিয়ে ট্রাম্প বলেন, “আমি সবেমাত্র ভারত থেকে ফিরেছি। ওখানে আমি হ্যান্ডশেক করিনি। এটা খুব সহজ। ওরা এ রকম ভাবে সকলকে স্বাগত জানান।

আরও পড়ুন: আজও ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনা রাজ্যে, সপ্তাহ জুড়ে একই থাকবে পরিস্থিতি

ভারতের পাশাপাশি জাপানের মাথা নীচু করে অভিবাদনের ভঙ্গিরও ভূয়সী প্রশংসা করেন ট্রাম্প। তাঁর সাফ কথা, “ভারত আর জাপান  আমাদের থেকে এগিয়ে।”

এদিকে গতবছর ডিসেম্বরে চিনের উহানে প্রাদুর্ভাব ঘটনা করোনা ভাইরাস বর্তমানে ছড়িয়ে পড়েছে বিশ্বের ১২০টিরও বেশি দেশে। আক্রান্তের সংখ্যা ১,২৭,০৭০। মৃত্যু হয়েছে ৪,৬৮৭ জনের।