চিনের পর বিশ্বে করোনা সবচেয়ে বেশি ছড়িয়েছে ইউরোপের ইতালিতে। এই দেশে কোভিড-১৯ ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১২,৪৬২। এখনও পর্যবন্ত মৃত্যু হয়েছে ৮২৭ জনের। এদের মধ্যে রয়েছে এক বৃদ্ধ দম্পতিও। দীর্ঘ ৬০ বছর একসঙ্গে সংসার করেছেন দু'জনে। জীবন সায়াহ্নে এসে মৃত্যুও বিচ্ছেদ ঘটাতে পারল না তাঁদের ভালবাসার। এক সঙ্গীর মৃত্যুর ২ ঘণ্টার মধ্যেই মারা গেলেন অপর সঙ্গী।

আরও পড়ুন: বিশ্বে মহামারীর আখ্যা করোনাকে, জেনে নিন কেন এপিডেমিক না হয়ে প্যানডেমিক হল কোভিড-১৯

৮২ বছরের সেভেরা বোলোতি এবং ৮৬ বছরের লুইগি কারারা একসঙ্গে সংসার করছেনে দীর্ঘ ৬০ বছর ধরে। বলতে গেলে ৫ যুগ একসঙ্গে রয়েছেন তাঁরা। গত কয়েকদিন ধরে করোনার সঙ্গে মোকাবিলা করতে ইতালি সরকার সকলকে গৃহবন্দি করে রেখেছেন। তার জেরে উত্তর ইকালির বেরগামো প্রদেশে আলিবিনো শহরে  আটকে পড়েন বৃদ্ধ দম্পতিও। তাঁদের ছেলে লুকা কারারা দাবি এভাবেই ৮দিন গৃহবন্দি থাকতে হয়েছিল সেভেরা ও লুইগিকে। দু'জনের শরীরের তাপমাত্রা ১০২ ডিগ্রি ফাইপেনহাইটে উঠে গেলেও গৃহবন্দি করে রাখার জন্য উপযুক্ত চিকিৎসা মেলেনি। 

আরও পড়ুন: করোনা ভাইরাস থেকে সাবধান থাকার উপায়, অ্যানিমেটেড ভিডিও প্রকাশ করল 'হু'

ছেলে লুকা জানান যদিও শেষপর্যন্ত লুইগিকে গত শনিবার বেরগামো হাসপাতালে ভর্তি করা সম্ভব হয়। রবিবারই মা সেভেরাকে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসতে হয় ওই হাসপাতালে। সেখানেই দু'জনে শরীরে করোনা ভাইরাসের দেখা মেলে। এরপর অসমর্থ শরীর আর মারণ ভাইরাসের সঙ্গে যুঝতে পারেনি। মঙ্গলবারদিন সকাল সোয়া নটা নাগাদ মৃত্যুর কোলে ঢোলে পড়েন বৃদ্ধ দম্পতির একজন। এর ২ ঘণ্টার মধ্যে বেলা ১১টা নাগাদ মৃত্যু হয় আরেক জনের।