অফিসে কাজের চাপে পডে অনেকেই কিছুটা সময় নিজেকে দিতে টয়লেটে যান। অনেকে মোবাইল ফোন ঘাটেন কেউবা খবরের কাগজ, বই পড়েন। কিন্তু সেখানেও এবার খেয়াল রাখতে পারে কর্তৃপক্ষ। কারণ স্মার্ট পাবলিক টয়লেটে থাকছে একরকমের টাইম সেন্সর। অফিসের কোনও কর্মীই  যাতে টয়লেটে বেশি সময় কাটাতে না পারেন সেই জন্য় একটা সময়সীমাও করে দেওয়া হয়েছে। মাত্র ১৫ মিনিট, এরই মধ্য়ে সব কাজ সারতে হবে। 

চিনের সাংহাইয়ে এই অভিনব পরিকল্পনা নিয়েছে সেখানকার মিউনিসিপ্যাল অথরিটি। শহরের নানা জায়গায় ১৫০টি স্মার্ট পাবলিক টয়লেট তৈরির ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এখানেই শেষ নয়,প্রতিটি কিউবিকলে থাকছে হিউম্যান বডি সেন্সর। এর ফলে কেউ যদি বেশি সময় টয়লেটে সময় কাটান,  সেন্সরই তা জানিয়ে দেবে যে, ভিতরে কেউ আছেন কিনা। আর এই সব তথ্যই চিন দেশের সরকার জমা নেবেন।

তবে শুধুমাত্র এটাই নয়, তার সঙ্গে আরও কিছু সুবিধা পাওয়া যাবে। এই সেন্সরের মাধ্যমে  ওই কিউব কতটা ফ্রেশ রয়েছে, কতটা পরিমানে জল রয়েছে তাও জানা যাবে।