গত ১৫ জুন রক্তাক্ত হয়েছিল গাওয়ান ঘাঁটি। ভারতী ও চিনা সেনাদের সংঘর্ষে এক কর্নেল হ ২০ জন ভারতীয় জওয়ান মারা গিয়েছিলেন। কিন্তু সেই সঙ্গে কতজন চিনা সেনা মারা গিয়েছিল বা আঘাত পেয়েছিল তা নিয়ে এখনও পর্যন্ত টুঁ শব্দটি করেনি বেজিং।  সম্প্রতি সংসদে রাজনাথ সিং-এর বিবৃতির পর চিন সরকারের মুখপত্র গ্লোবাল টাইমসের সম্পাদক জানিয়েছেন তিনি যতদূর জানেন চিনা সেনাদের ক্ষতি হলেও তা ভারতের তুলনায় অনেকটাই কম। 

সম্প্রতি রাজনাথ সিং সংসদে বিবৃতি দিতে গিয়ে বলেছিলেন গালওয়ান সংঘর্ষে ভারতীয় সেনাদের হাতে নিহত হয়েছিল চিনা সেনারাও। চিনাদেরও প্রভূত ক্ষতি হয়েছিল। আর ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রীর এই মন্তব্য নস্যাত করতে গিয়েই গ্লোবাল টাইমের সম্পাদক পরোক্ষে স্বীকার করে নিয়েছেন যে সংঘর্ষে চিনেরও ক্ষতি হয়েছিল। কারণ সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি বলেছিলেন যে তিনি যতদূর জানেন তাতে ১৫ জুনে গালওয়ান সংঘর্ষে ভারতের ২০ সেনা নিহত হয়েছিল। কিন্তু চিনের ক্ষতি ভারতের তুলনায় অনেকটাই কম। যার অর্থ ভারতীয় সেনারা ক্ষতি সাধন করেছিল শত্রু শিবিরেরও। তিনি আরও বলেছেন চিনা সেনাদের হাতে অনেক ভারতীয় সেনা বন্দি হয়েছিল। কিন্তু কোনও চিনা সেনাকে ভারত আটকাতে পারেনি। 

গ্লাবাল টাইমস হল চিনের ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টির সরকারি মুখপাত্র। গালওয়ান সংঘর্ষের পরই এই পত্রিকার পক্ষ থকে এইটি ট্যুইট করা হয়েছিল যেখানে উল্লেখ করা হয়েছিল সংঘর্ষে রীতিমত ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে চিন। কিন্তু কিছু সময় পরেই সেই বার্তা সোশ্যাল মিডিয়া থেকে তুলে নেওয়া হয়েছিল। তাই অনেক আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞ মনে করছেন গ্লোবাল টাইমসের সম্পাদক বা চিনা সরকার এখনও গালওয়ান সংঘর্ষের চিনা সেনার ক্ষয়ক্ষতির তথ্য নিয়ে লুকোচুরি খেলছে। তুলনায় ভারত সেনাদের পাশে দাঁড়িয়ে অনেকটাই স্পষ্ট পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।