Asianet News BanglaAsianet News Bangla

শ্রীলঙ্কার মত আর্থিক সংকট কি শুরু হল চিনে? ভিডিওতে দেখুন টাকা তুলতে মরিয়া গ্রাহকদের ব্য়াঙ্কে বিক্ষোভ

চিনের হেনান প্রদেশের ঝেংঝু শহরের প্রচুর অ্যাকাউন্ট সিল করে দেওয়া হয়েছে। জব্দ করা হয়েছে বা বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। ফ্রিজ করে দেওয়া হয়েছে বেশ কিছু অ্যাকাউন্টও। আর সেই কারণেই পথে নেমে বিক্ষোভ দেখাচ্ছে প্রচুর মানুষ।

Chinese citizen clashes with police over money deposited in bank watch video bsm
Author
Kolkata, First Published Jul 11, 2022, 10:24 PM IST

শ্রীলঙ্কার মত অবস্থা কী চিনের হতে চলেছে? কারণ সম্প্রতি সামনে এসেছে এমন একাধিক ভিডিও যেখানে বলা হয়েছে ব্যাঙ্কে গচ্ছিত টাকা পাওয়ার জন্য পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের পথে যেতে হচ্ছে চিনের সাধারণ নাগরিকদের। মিডিয়া রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে চিনের লিকুইড ক্যাশের অভাব রয়েছে। আর সেই কারণেই নিজেদের উপার্জিত বা জমানো টাকা পাওয়ার জন্য বিক্ষোভে যেতে হচ্ছে নাগরিকদের। 

চিনের হেনান প্রদেশের ঝেংঝু শহরের প্রচুর অ্যাকাউন্ট সিল করে দেওয়া হয়েছে। জব্দ করা হয়েছে বা বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। ফ্রিজ করে দেওয়া হয়েছে বেশ কিছু অ্যাকাউন্টও। আর সেই কারণেই পথে নেমে বিক্ষোভ দেখাচ্ছে প্রচুর মানুষ। 

হেনান প্রদেশের ব্যাঙ্ক আমানতকারীরা হেনান প্রদেশের সরকারের দূর্ণীতি ও হিংসার বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে সরব হয়েছে। ব্যাঙ্ক আমানতকারীদের অভিযোগ এপ্রিল মাস থেকেই টাকা পেতে তাদের সমস্যা হচ্ছে। তাতেই প্রশ্ন উঠছে চিনের অর্থনৈতিক অবস্থাও শ্রীলঙ্কার মত হতে চলেছে।  মিডিয়া রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে সবথেকে খারাপ অর্থনৈতিক সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে চিনের শি জিংপিং-এর সরকার। যদিও এই বিষয়ে এখনও পর্যন্ত মুখ খুলতে রাজি নয় বেজিং। 

মিডিয়া রিপোর্টে বলা হয়েছে চিনের হেনান প্রদেশের চারটি গ্রামীণ ব্যাঙ্ক গত এপ্রিল মাস থেকে বহু গ্রাহকের অ্যাকাউন্ট ফ্রিজ করেছে। যার মূল্য প্রায় মিলিয়ন ডলার। এমনিতেই চিনে কোভিড-১৯ মহামারি আর দীর্ঘ কঠোর লকডাউনের কারণে অর্থনীতি একটি কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। হাজার হাজার মানুষের জীবনে সংকটে পড়েছে। তারই মধ্যে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ড ফ্রিজ করে দেওয়ায় আরও সমস্যা তৈরি হয়েছে। 

হেনান প্রদেশের এই বিক্ষোভ রীতিমত বড় আকার নিয়েছে। চিনের কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক পিলিলস ব্যাঙ্ক অব চায়নার ঝেংঝু শাখার সামনে প্রচুর বিক্ষোভকারী জড়ো হয়েছে। এই ব্যাঙ্কের সামনে একাধিক বিক্ষোভ হয়েছে। আপনিও দেখুন সেই ভিডিওটি।


জুন মাসে, ঝেংঝো কর্তৃপক্ষ আমানতকারীদের গতিবিধি নিষিদ্ধ করতে এবং তাদের পরিকল্পিত প্রতিবাদ ব্যর্থ করার জন্য দেশের ডিজিটাল কোভিড স্বাস্থ্য-কোড সিস্টেমের সাথে টেম্পারিংয়ের আশ্রয় নিয়েছিল, যার ফলে দেশব্যাপী হৈচৈ শুরু হয়েছিল। সোশ্যাল মিডিয়ায় যে ভিডিওগুলি ঘুরে বেড়াচ্ছে তাতে দেখা গেছে প্রতিবাদী ব্যাঙ্ক আমানতকারীদের "হেনান সরকারের দুর্নীতি ও সহিংসতার" নিন্দা করে স্লোগান তুলে ব্যানার নেড়েছে৷ কেউ কেউ এমনকি দেশপ্রেম প্রদর্শনের জন্য জাতীয় পতাকা ধারণ করা দেশের প্রতিবাদকারীদের জন্য একটি সাধারণ কৌশল যেখানে ভিন্নমতকে জোরালোভাবে দমন করা হয়। 

এশিয়া মার্কেটসের একটি প্রতিবেদন অনুসারে, হেনান এবং আনহুই প্রদেশ জুড়ে ছয়টি ব্যাংক কার্যকরভাবে আমানত হিমায়িত করেছে। তারা হল:

ইউঝো জিনমিনশেং গ্রাম ব্যাংক (জুচাং সিটি, হেনান প্রদেশ)
ঝেচেং হুয়াংহুই ব্যাংক (শংকুই শহর, হেনান প্রদেশ)
শাংকাই হুইমিন গ্রামীণ ব্যাংক (ঝুমাদিয়ান সিটি, হেনান প্রদেশ)
 নিউ ওরিয়েন্টাল ভিলেজ ব্যাংক (কাইফেং শহর, হেনান প্রদেশ)
হুয়াইহে নদীর গ্রাম তীর (বেংবু সিটি, আনহুই প্রদেশ)
Yixian কাউন্টি গ্রাম ব্যাংক (হুয়াংশান সিটি, আনহুই প্রদেশ)।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios