চিন জুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে করোনা ভাইরাস। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। রোজই আক্রান্ত হচ্ছেন প্রচুর মানুষ। চিন ছাড়িয়ে বিশ্বের নানা প্রান্তে ছড়িয়ে পড়েছে এই মারণ ভাইরাস। গোটা চিন জুড়ে ছড়িয়েছে আতঙ্ক। করোনা থাবা বসিয়েছে সিঙ্গাপুরেও। এই পরিস্থিতিতে নিজেদের বিয়ের অনুষ্ঠান ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সারলেন এক নববিবাহিত দম্পতি।

চিনা নববর্ষে  চিনের হুনানে এসেছিলেন জোসেপ ইয়ো এবং তাঁর হবু স্ত্রী কাং টিং। পাত্রী কাং-এর পরিজনেরা থাকেন সিঙ্গাপুরে। যদিও পাত্র-পাত্রী দু'জনেই এখন কর্মসূত্রে সিঙ্গাপুর নিবাসী। বিয়ের আগে পরিবারের সঙ্গে দেখা করে ৩০ জানুয়ারি ফের সিঙ্গাপুরে ফিরে যান দু'জনে। 

আরও পড়ুন: ১০ ফেব্রুয়ারি থেকে ফিক্সড ডিপোজিটে কমছে সুদের হার, সস্তা হচ্ছে স্টেট ব্যাঙ্কের গৃহঋণ

এদিকে গত ডিসেম্বরে হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহানে প্রথম করোনা সংক্রমণের ঘটনা ঘটে। ক্রমেই মহামারীর আকার নেয় এই ভাইরাস। এখনও পর্যন্ত চিনে করোনা ভাইরাসে সবচেয়ে বেশি মৃতের সংখ্যা হুবেই প্রদেশ। যার প্রতিবেশী রাজ্য আবার হুনান। দেশজুড়ে করোনা ছড়িয়ে পড়ার কারণে অনেক আত্মীয়-স্বজনই শেষমুহুর্তে সিঙ্গাপুরে জোসেপ ও কাং-এর বিয়েতে যোগ দিতে রাজি হননি। 

এদিকে চিন থেকে ফেরার পর ১৪ দিন নিজেদের গৃহবন্দী করে রাখার সিদ্ধান্ত নেন জোসেপ ও কাং। তাদের শরীরে করোনা বাসা বাঁধেনি সেই বিষয়ে নিশ্চিত হতেই এই ধরণের পদক্ষেপ নিয়েছিলেন এই নবদম্পতি। সেই কারণে বিয়ের দিন সেজেগুজে হোটেলের ঘরে  একান্তেই কাটালেন নবদম্পতি। তবে থেমে থাকেনি বিয়ের পরে প্রীতিভোজ। নবদম্পতি হাজির হতে না পারলেও বিয়ে উপলক্ষে প্রীতিভোজের আসর বসেছিল সিঙ্গাপুরে। 

আরও পড়ুন: মার্কিন হামলায় খতম আল কায়দা প্রধান, বিবৃতি দিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প

 ইয়ো এবং কাং বিয়ে করেন ২ ফেব্রুয়ারি। সেইদিন অতিথিদের জন্য আয়োজন করা হয়েছিল বিশেষ প্রীতিভোজের। নবদম্পতি তাতে হাজির থাকতে না পারলেও অর্ভ্যত্থনার দায়িত্বে ছিলেন ইয়োর বোন। পাত্রের বাবা মায়ও চিনা নববর্ষের সময় কাং-এর পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে চিনে যাওয়ায় তারাও হাজির থাকতে পারেননি বিয়ের অনুষ্ঠানে। ছিলেন সেচ্ছানির্বাসনে।

চিনা নাগরিকদের আপাতত দেশে ঢুকতে দিচ্ছে না সিঙ্গাপুর। সেকারণে বিয়ের অনুষ্ঠানে হাজির থাকতে পারেননি কাং-এর পরিবার। এদিকে বিয়ের অনুষ্ঠানে ১৯০ জন অতিথির আমন্ত্রণ থাকলেও  করোনা আতঙ্কে এসেছিলেন মাত্র ১১০ জন। আমন্ত্রিতদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সেই পরিচয়পর্ব ও শুভেচ্ছা বিনিময় করেন নবদম্পতি।