ক্রমশই জটিল হচ্ছে নেপালের বন্যা পরিস্থিতি। শেষ পাওয়া খবর অনুসারে, ভূমিধস এবং বন্যার জেরে সেদেশে মৃত্যু হয়েছে ১১১ জনের। বন্যা এবং ভূমিধসের জেরে আহত হয়েছেন প্রায় ৬৭ জন মানুষ। জারি রয়েছে উদ্ধারকাজ। প্রশাসনিক সূত্রে জানা গিয়েছে এখনও পর্যন্ত অন্তত ৪০ জন মানুষের নিখোঁজের খবর মিলেছে। 

নেপালের গুল্মি জেলায় এখনও পর্যন্ত ১৩ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে। যা অন্যান্য জেলার তুলনায় সবথেকে বেশি। পাশাপাশি নেপালের সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত জেলাগুলি হল, সিন্ধুলি, ধানুসা, মাকওয়ানপুর এবং ভোজপুর। সূত্রের খবর, গত ১১ জুলাই থেকে হয়ে চলা লাগাতার বৃষ্টির জেরে প্রবল বন্যায় নেপালের ৭০টি জেলার মধ্যে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে অন্তত ৬৪টি জেলা। 

নেপালে বন্যায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে হল ১০৮, চলছে উদ্ধারকার্য

ইতিমধ্যেই একাধিল এলাকা থেকে মৃত্যুর খবর আসতে শুরু করেছে। সরকারি সূত্রের খবর, ভূমিধস এবং বন্যার কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন অন্তত দশ হাজার মানুষ। আরও জানা গিয়েছে, ভারী বৃষ্টির কারণে নেপালি মুদ্রাও নষ্ট হয়ে গিয়েছে। বন্যা এবং ভূমিধসের কারণে কার্যত ব্যহত হচ্ছে নেপালের জনজীবন। উদ্ধারকার্যে নেমেছে বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী। পাশাপাশি উদ্ধারকার্যে যৌথভাবে হাত লাগিয়েছে নেপাল পুলিশ ফোর্স এবং নেপালের সেনাবাহিনী।