দীপাবলির উচ্ছাস আর শুধুমাত্র ভারতের মধ্যেই সীমাবদ্ধ নেই। ধীরে ধীরে বিশ্বব্যাপী উৎসবে পরিণত হতে চলছে। অন্যবারের মত এবারও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাসছে রাষ্ট্রপ্রধানদের শুভেচ্ছা বার্তা। আর সেই তালিকায় ট্রাম্পের পাশাপাশি জায়গা করে নিয়েছেন তাঁর প্রধান প্রতিপক্ষ জো বাইডেন। রয়েছে কমলা হ্যারিস  মাইক পম্পেও। পিছিয়ে নেই ব্রিটেনের প্রনাধমন্ত্রী বরিস জনসন। কানাডার রাষ্ট্রপ্রধান জাস্টিন টুডোও রয়েছেন শুভেচ্ছা জানিয়েছেন দীপাবলি উপলক্ষ্যে। 


মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোলান্ড ট্রাম্প। অন্যবারের মত এবারাও দীপাবলির শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। তিনি ২০১৭  সালের  হোয়াইটহাইসে তাঁর দীপাবলি উদযাপনের একটি ছবি দেওয়া কার্ড শেয়ার করেছেন। আর সেই কার্ডের মাধ্যমে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। 

অন্যদিকে তাঁরই মন্ত্রী মাইক পম্পেয়ও দীপাবলির শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি লিখেছেন, অন্ধকার দূর করে আলোর উৎসবে সামিল হয়েছেন প্রত্যেকে। এটি খুবই আনন্দের উৎসব। 

তবে পিছিয়ে নেই নবনির্বাচিত মার্কিন রাষ্ট্রপতি জো বাইডেন। তিনিও দীপাবলির শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, দীপাবলির সঙ্গে সঙ্গেই নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি লিখেছেন প্রচুর হিন্দু, জৈন, শিখ আর বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের মানুষে আলোর উৎসবে সামিল হয়েছেন। তাঁদের সকলকেই শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তিনি পাশাপাশি তিনি লিখেছেন, হিন্দু ভাষায় ইংরেজিতে সাল মুবারকও লিখেছেন। 

সদ্যো নির্বাচিত মার্কিন উপরাষ্ট্রপতি কমলা হ্যারিসও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। তিনি লিখিছেন প্রত্যেকেই নিরাপদ, স্বাস্থ্যকর ও আনন্দময় নতুন বছর উদযাপন করুক। 


ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন দীপাবলি উপলক্ষ্যে ট্যুইট বার্তায় তিনি বলেন, মহামারির কারণে চলতি বছর অন্যবছরের তুলনায় অনেকটাই আলাদা। ব্রিটিশ হিন্দু, শিখ ও জৈনরা যেভাবে এই মহামারির সময় অনেককে সাহায্য করার জন্য এগিয়ে এসেছে তাঁদেরকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তিনি। 


আয়ারল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীও দীপাবলির শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।  

অস্ট্রিয়ার চ্যানসেলরও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীসহ দেশের সকল বাসিন্দাকে আলোর উৎসবের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।