বিশ্বে সাড়া ফেলে দেওয়া হলিউডি ছবি টাইটানিকের সেই দৃশ্যটি মনে আছে? জাহাজ ডুবছে, নিশ্চিত মৃত্যু জেনে বৃদ্ধ-বৃদ্ধা একে অপরকে চুম্বন করে শেষ বিদায় জানাচ্ছেন? অনেকটা সেই ছবি দেখা গেল চিনে। করোনাভাইরাস-এর ধাক্কায় সমগ্র চিনই এখন টাইটানিকের মতো ডুবতে বসেছে। আর তারমধ্যে হাসপাতালের আইসিইউ-তে পাশাপাশি বিছানায় শুয়ে একে অপরের হাত জড়িয়ে ধরে শেষ বিদায় জানাতে দেখা গেল এক অশীতিপর চিনা দম্পতি-কে।

বয়সের ভারে তাঁদের দুজনেরই হাত ও মুখের চামড়া কুঁচকে গিয়েছে। নাক-মুখ ঢাকা ভাইরাস প্রতিরোধী মাস্ক বা মুখোশ দিয়ে। ভিডিও-টিতে দেখা যায় বৃদ্ধ চিনা ভাষায় বৃদ্ধাকে কিছু একটা জিজ্ঞেস করেন। ভাষার ব্যবধানে তিনি ঠিক কী বলেন তা বোঝা না গেলেও শরীরি ভাষায় ও কন্ঠস্বরে স্ত্রীর জন্য তাঁর উদ্বেগ স্পষ্ট। বৃদ্ধা স্ত্রী ক্ষীণ কন্ঠে কিছু একটা জানান। জবাবে সম্ভবত স্বান্তনাসূচক কিছু বলেন বৃদ্ধ।

ভিডিওটি চিনের ঠিক কোন জায়গার তা জানা যায়নি। এক নেটিজেন সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিডিওটি পোস্ট করে ক্যাপশনে লিখেছেন, 'দম্পতি বলতে কী বোঝায়? ৮০ ঘরে বয়সের করোনভাইরাস আক্রান্ত দুই প্রবীণ রোগী আইসিইউতে একে অপরকে বিদায় জানিয়েছেন। এটাই তাদের শেষ দেখা বা শেষ কথা বলা হতে পারে'।

চিনে যতদিন যাচ্ছে তত মারাত্মক আকার ধারণ করছে করোনাভাইরাস সংক্রমণ। ইতিনমধ্যেই সরকারি হিসাবে মতের সংখ্যা ৪২৫ ছাড়িয়ে গিয়েছে। আরও হাজার হাজার মানুষ এই রোগে আক্রাম্ত। ভারতেও তাবা বসিয়েছে করোনাভাইরাস। কেরলে আপাতত ৩ জন আক্রান্তের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে। সন্দেহভাজনের তালিকায় রয়েছেন বহু মানুষ। সেই রাজ্যে করোনাবাইরাস সংক্রমণ-কে রাজ্য বিপর্যয় হিসাবে ঘোষণা করা হয়েছে।

স্বাভাবিকভাবেই এই প্রবীণ দম্পতির ভিডিওটি সোশ্য়াল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। নেটিজেনরা সকলেই এই প্রবীন দম্পতির দুর্ভোগ দেখে কষ্ট পেয়েছেন। তাঁরা বলছেন, এই বৃদ্ধ-বৃদ্ধাদের ভোগান্তি দেখাটা খুবই কষ্টকর। পরিস্থিতি পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গিয়েছে। এটাই প্রিয়তমার প্রতি ভালোবাসার ছবি। ভিডিওটা খুবই কষ্টের। তবে এটা সেই প্রেমের ছবি যা জীবন শেষ না হওয়া অবধি শেষ হয় না। দেখে নেওয়া যাক এরকমই আরও কিছু প্রতিক্রিয়া -