দেশব্যাপী সফরে বেরিয়েছেন ফরাসী রাষ্ট্রপতি ইমানুয়েল ম্যাক্রঁ। সেই সফরের দ্বিতীয় দিনে, মঙ্গলবার দক্ষিণ-পূর্ব ফ্রান্সে আসেন তিনি। কিন্তু, অভিজ্ঞতা মোটেই সুখের হল না তাঁর। সোশ্যাল মিডিয়া ছড়িয়ে পড়া ভিডিওগুলিতে দেখা গিয়েছে, রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে থাকা এক ব্যক্তির সঙ্গে হাত মেলাতে গিয়েছিলেন ম্যাক্রঁ। কিন্তু, সেই ব্যক্তি শুভেচ্ছা বিনিময়ের পরিবর্তে ৪৩ বছর বয়সী রাষ্ট্রপতিকে সপাটে একটি চড় মারেন। জানা গিয়েছে, এরপরই অবশ্য ম্যাক্রঁর দেহরক্ষীরা দ্রুত বিষয়টিতে হস্তক্ষেপ করে এবং এই ঘটনার জন্য দু'জনকে গ্রেফতারও করা হয়।

ঘটনাটি ঘটে দক্ষিণ-পূর্ব ফ্রান্সের ড্রোম অঞ্চলের তেইন-ল-হার্মিটেজ গ্রামে। এদিন স্থানীয় সময় দুপুর সোয়া একটার সময় ম্যাক্রঁ একটি হাই স্কুল পরিদর্শনে এসেছিলেন। সেখান থেকে বেরিয়ে গাড়িতে উঠেও পড়েছিলেন, কিন্তু, তাঁকে দেখতে যে ভিড় জমেছিল, তাদের ডাকেই আবার নেমে পড়েছিলেন। এরপর সেই জনতার দিকে হাত মেলানোর জন্য এগিয়ে গিয়েছিলেন তিনি। আর সেই সময়ই এই দুঃখজনক ঘটনাটি ঘটে, এমনটাই জানানো হয়েছে ফরাসী সরকারের পক্ষ থেকে। কারা আরও জানিয়েছে, রাষ্ট্রপতিকে চড় মেরেছে যে ব্যক্তি, তাকে এবং আরও একজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে ফরাসী আধাসেনা বাহিনী। এই ঘটনাটি ফরাসী রাষ্ট্রপতির নিরাপত্তা ব্যবস্থার গুরুতর লঙ্ঘন হিসাবেই দেখা হচ্ছে।

তবে, দেশব্যাপী সফরের একেবারে শুরুতেই এই ঘটনা তাঁর সফর থেকে প্রচারের উদ্দেশ্যটিই ধাক্কা খেতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। ম্যাক্র বলেছেন তাঁর এই সফর হল 'দেশের স্পন্দন গ্রহণ'। কিন্তু, সকলেই জানেন, তাঁর  এই সফর আগামী বছরের ফরাসী রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের দিকে লক্ষ্য রেখেই। পুনর্নির্বাচিত হতে চান এই সেন্ট্রিস্ট নেতা। কিন্তু, প্রাক নির্বাচনী সমীক্ষাগুলি বলছে অতিডানপন্থী নেতা মেরিন লে পেন-এর সঙ্গে ম্যাক্রঁর ব্যবধান খুবই সামান্য। এরপরই দুই মাস ধরে প্রায় বারোটি জায়গা মিলিয়ে দেশব্যাপী এই সফরের পরিকল্পনা করেছিলেন ম্যাক্রঁ। কোভিড-১৯ মহামারির কারণে এক বছরেরও বেশি সময় ধরে ভোটারদের সাথে ব্যক্তিগতভাবে সাক্ষাত করতে পারেননি ম্যাক্রঁ, এই সফরে সেটাই চেয়েছিলেন। অভিজ্ঞতা সুখকর হল না।