মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগোতে  ১৯ বছরের এক ছাত্রীকে নৃশংস ভাবে খুন করা হল। হায়দরাবাদের বাসিন্দা রুথ জর্জ ইলিনয় বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক স্তরে পড়াশোনা করছিলেন। শনিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসের গ্যারেজ থেকে তাঁর দেহ উদ্ধার হয়। পারিবারিক গাড়ির পিছনের আসনে পড়েছিল রুথের দেহ। 

এই ঘটনায় ডোনাল্ড থ্রুম্যান নামে ২৬ বছরের এক ব্যক্তিকে শিকাগো মেট্রো স্টেশন থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ইলিয়ন বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গেই যুক্ত রয়েছেন অভিযুক্ত ব্যক্তি। জর্জকে খুন ও যৌন নির্যাতনের অভিযোগে ইতিমধ্যে তার বিরুদ্ধে মামলা রুজু করেছে পুলিশ। 

শ্বাসরোধ করেই ১৯ বছরের ছাত্রীটিকে হত্যা করা হয়েছে বলে মেডিক্যাল পরীক্ষায় জানা গেছে। তাঁর শরীরে যৌন নির্যাতনের চিহ্নও পাওয়া গেছে। এই নৃশংস হত্যাকাণ্ডে হতবাক মার্কিন মুলুকের বাসিন্দারা। 

গত শুক্রবার থেকে জর্জে খোঁজ মিলছিল না। শনিবার তাঁর পরিবারের তরফ থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের পুলিশকে তাঁর নিখোঁজ হওয়ার খবর জানান হয়। তল্লাশি চালাতে গিয়ে হ্যালস্টেড স্ট্রিট পার্কিং গ্যারেজ থেকে তাঁর ফোন উদ্ধার করে পুলিশ। এর পর জর্জদের একটি পারিবারিক গাড়ির পিছনের আসন থেকে তাঁর অসাড় দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। গোটা ঘটনার তদন্তে নেমে এফবিআই-এর সাহায্য চেয়েছে ইলিনয় পুলিশ। 

তদন্তে নেমে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিডিও ফুটেজ খতিয়ে দেখে পুলিশ। সেখানে দেখা যায় শনিবার জর্জের পিছু নিয়েছিল অভিযুক্ত। জর্জ গ্যারেজে ঢুকলে ডোনাল্ড সেখানে যায়। এর আধঘণ্টা পর গ্যারেজ থেকে বেরিয়ে আসতে দেখা যায় অভিযুক্তকে। 

ব্লু লাইন রেল স্টেশন থেকে থ্রুম্যানকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এর আগেও থ্রু্ম্যানের বিরুদ্ধে পুলিশের খাতায় অভিযোগ জমা হয়েছিল।