ধীরে ধীরে ঘনিয়ে আসছে সেই দিন, যখন সম্পূর্ণরূপে জলের তলায় চলে যাবে ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী জাকার্তা। পৃথিবীর মধ্যে ইন্দোনেশিয়ার জাকার্তা সবচেয়ে দ্রুত জলে তলিয়ে যাওয়ার পথে এগোচ্ছে। আবহবিদরা জানিয়েছেন, আগামী ২০৫০ সালের মধ্যেই এই রাজধানী শহরের এক-তৃতীয়াংশই চলে যেতে পারে জলের তলায়।

পরিবেশবিদরা জানিয়েছেন, বিগত কয়েক দশক ধরে ভূগর্ভস্থ জলের অনিয়ন্ত্রিত শোষণ, ক্রমাগত আবহাওয়ার পরিবর্তন, এবং  সমুদ্রের জলস্তরের ক্রমশ বৃদ্ধি পাওয়ার ফলে একটু একটু করে জলের তলায় তলিয়ে যেতে শুরু করেছে ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী জাকার্তা। 

ইতিমধ্যেই আবহাওয়ার পরিবর্তনের জেরে একটু একটু করে প্রভাব পড়তে শুরু  করেছে সেখানে, আর তাই প্রশাসনের তরফ থেকে তড়িঘড়ি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে যে, রাজধানী শহর পরিবর্তনের লক্ষ্যেই রয়েছে ইন্দোনেশিয়া। এই নিয়ে ইন্দোনেশিয়ার নেতা জোকো উইডোডো সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় জানিয়েছেন, ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী নিয়ে যাওয়া হবে বোর্নিও দ্বীপে।

প্রবল বৃষ্টিতে ভূমিধস হিমাচল প্রদেশে, রাজ্যের একাধিক জেলায় জারি লাল সতর্কতা

তবে দেশের জাতীয় সংরক্ষণের স্বার্থে রাজধানী অঞ্চল স্থানান্তরিতকরণের প্রচেষ্টা নিঃসন্দেহে একটা ভাল সিদ্ধান্ত হলেও, বিরাট কোনও প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের হাত থেকে জাকার্তায় বসবাসকারী প্রায় ১০ মিলিয়ন মানুষকে মাথা গোঁজার জায়গা সংকুলান কীভাবে হবে সেই নিয়েই তৈরি হয়েছে জোর জল্পনা।

জাকার্তার উত্তরের প্রান্তে পাইপের মাধ্যমে পানীয় জলের কোনও ব্যবস্থা নেই, যার ফলে সেখানকার সাধারণ মানুষ বা স্থানীয় কলকারাখানাগুলি জলাশয়ের জল ব্যবহার করে থাকে। সেখানকার ভূগর্ভস্থ জলের ক্রমহ্রাসমানতার কারণে জাকার্তার কিছু অঞ্চল প্রতি বছর ২৫ সেন্টিমিটার করে জলের তলায় চলে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন পরিবেশবিদরা।